এক ড্রোনের মধ্যে ৬০০ টি ড্রোন। আসছে অত্যাধুনিক টেকনোলোজি

নিউজ ডেস্কঃ আধুনিক যুদ্ধে যে বিরাটভাবে ড্রোনের ব্যবহার হতে চলেছে তা বেশ ভালো করে আঁচ করতে পেরেছে আমেরিকা বহু বছর আগে। আর সেই কারনে একের পর এক ড্রোন অত্যাধুনিক ড্রোন তাদের সার্ভিসে আনার চেষ্টা করছে। কিছু ড্রোনের পরীক্ষা করা ইতিমধ্যে শেষ, যা কিছু মাসের মধ্যে সার্ভিসে আসবে বলে জানিয়েছে একাধিক সামরিক বিশেষজ্ঞরা।

আমেরিকার স্টেলথ কমব্যাট ড্রোন XQ-58A। যা কিছুমাসের মধ্যেই সার্ভিসে আসতে চলেছে,কারন ইতিমধ্যে ষষ্ঠ বারের মতন সফল ফ্লাইট টেস্ট সম্পন্ন করেছে। তবে এবারের পরীক্ষার বিশেষ গুরুত্ব আছে, কারন প্রথমবারের মত XQ-58A থেকে যুদ্ধাস্ত্রের পরীক্ষা সম্পন্ন হল। ড্রোনটির ইন্টারন্যাল(ভেতরের) ওয়েপনস বে(অস্ত্র রাখার স্থান) থেকে ALTIUS-600 ছোট ড্রোন লঞ্চ করেছে।

আমেরিকার অ্যারিজোনাতে এই পরীক্ষা করা হয়েছে। পরীক্ষাটি করেছে আমেরিকার AFRL (Air Force Research Laboratory)। এই সংস্থার আমেরিকার অ্যারিজোনাতে ১১০০০ একর জায়গার উপর ৯ টি টেকনোলজি সেন্টার রয়েছে।  যেখানে মুলত বিভিন্ন ধরনের গবেষণা করা হয়। এছাড়াও পৃথিবীতে মোট ৪০ টি আরও গবেষণা কেন্দ্র রয়েছে AFRL  এর।

এই XQ-58A ড্রোন প্রধানত আমেরিকার ভবিষ্যতের যুদ্ধের জন্য তৈরি করা হচ্ছে। ড্রোন গুলি পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধবিমান F-35 এবং F-22 কে এয়ার সাপোর্ট দেবে। আমেরিকার F-35 যখন অ্যাটাকে যাবে তখন এক একটা F-35 কে ৬ টা XQ-58A কভার দিয়ে নিয়ে যাবে। একবার শুধু ভাবুন যে ভবিষ্যতে আমেরিকা কি মাপের বড় প্ল্যান করে এগিয়ে যাচ্ছে। একটা যুদ্ধবিমানের সাথে ৬ টি ড্রোন, তার মধ্যে আবার ৬০০ টি ছোট মাপের ড্রোন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *