উত্তর কোরিয়ার হামলা মোকাবেলার করতে ২০১৩ সালে আমেরিকা মোতায়েন করেছে এই বিশেষ ক্ষেপণাস্ত্র। দেখুন এর ক্ষমতা এক ঝলকে

নিউজ ডেস্কঃ যুক্তরাষ্ট্রের এটি এমন একটি প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা যা আক্রমণের জন্য ধেয়ে আসা যেকোনো ক্ষেপণাস্ত্রকে মুহূর্তে ধ্বংস করে দিতে সক্ষম। এই ক্ষেপণাস্ত্র  টিএইচএএডি পৃথিবীর সবচেয়ে শক্তিশালী ও ভয়ংকর প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা।যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি একটি বিশাল ট্রাকের উপর বসানো থাকে এই প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা। এ প্রযুক্তিটিকে ‘থাড’ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বলা হয়।

আধুনিক দুনিয়ায় এই  ক্ষেপণাস্ত্রটি জন্য কোনো ওয়ারহেড প্রয়োজন হয় না। এই ক্ষেপণাস্ত্রটিতে কাইনেটিক এনার্জি  ব্যবহার করা হয়। যার সাহায্য দ্রুতগতিতে ধেয়ে আসা ক্ষেপণাস্ত্রকে আঘাত করতে সক্ষম। তবে এটিকে পরীক্ষা করে দেখার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের মিসাইল ডিফেন্স এজেন্সির একটি মিসাইল ছোড়েন যা মাত্র ৫ মিনিটের মধ্যে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করে সেটি ধ্বংস করে দেয়।(টিএইচএএডি) নামের এই ক্ষেপণাস্ত্রটি মূলত উত্তর কোরিয়ার হামলা মোকাবেলার জন্য ২০১৩ সাল থেকে এ প্রযুক্তি মোতায়েন করে রেখেছে যুক্তরাষ্ট্র।    

যুক্তরাষ্ট্রের থেকে  ৩ দশমিক ৪ বিলিয়ন ডলার দিয়ে এই প্রযুক্তিটি ইতিমধ্যে কেনেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ আরব আমিরাত। এছাড়াও এই ক্ষেপণাস্ত্রটি কিনতে চেষ্টা করছে কাতার ও সৌদি আরব।তবে যুক্তরাষ্ট্রও কিন্তু এই ক্ষেপণাস্ত্রটি এই দুইটির দেশের কাছে এটি বিক্রি করতে  আগ্রহী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *