ট্যাঙ্কের উপর এই লঞ্চার সিস্টেমই ঘুম কেড়েছে শত্রুপক্ষের। দেখুন এর বিধ্বংসী রুপ

নিউজ ডেস্কঃ ভারতবর্ষের হাতে থাকা ট্যাঙ্ক গুলি যেকোনো সময় শত্রুপক্ষের ঘুম ওড়াতে পারে। আর এই ট্যাঙ্ক গুলি রাশিয়ার থেকেই ক্রয় করা।সবথেকে বড় ব্যাপার হল এই যে এই ট্যাঙ্কের সংখ্যা পাকিস্তান এবং চীনের থেকেও বেশী। আসলে ভারতবর্ষকে দুই শত্রুপক্ষের বিরুদ্ধে সবসময় নজর রাখতে হয় বলে একটিভ ট্যাঙ্কের সংখ্যা বাড়িয়ে রাখাটা দরকার, এমনটাই মত সামরিক বিশেষজ্ঞদের। তবে এই ট্যাঙ্কের উপরে রাখা মাল্টি লঞ্চার সিস্টেম গুলির ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ অনেকসময়।

সোভিয়েত ইউনিয়নের সময় তৈরি হওয়া বেশ কিছু সামরিক অস্ত্র সারা পৃথিবীর ঘুম উড়িয়েছে তা বলাই বাহুল্য। এবং সবথেকে বড় বিষয় হল এই যে তাদের হাতে থাকা অনেক অস্ত্রই গোপন করে রাখা হয়েছিল।

TOS 1 মাল্টি রকেট লঞ্চার সিস্টেম।এটি টি ৭২ ট্যাঙ্কের কথা মাথায় রেখেই তৈরি করা হয়েছিল। সোভিয়েত-আফগান যুদ্ধে এই অস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছিল। অস্ত্রটি ১৯৮৯ সালে ব্যবহার করেছিল তবে ১৯৯৯ এ সকলের সামনে নিয়ে আসে রাশিয়া। বর্তমানে রাশিয়া ছাড়াও আজারবাইজান, আর্মেনিয়া, সিরিয়ার মতো একাধিক দেশ ব্যবহার করে। এই মাল্টিলঞ্চার সিস্টেমটি প্রায় ১০ টি যুদ্ধে এখনও পর্যন্ত ব্যবহার করা হয়েছে।

TOS 1 এর থেকে TOS 1 a এর রেঞ্জ বেশ খানিকটা বেশী। এটি সর্বচ্চ ২০,০০০ ফুট পর্যন্ত হামলা চালাতে সক্ষম। এছাড়াও ৩০ রাউন্ড ফায়ার করতে পারে প্রতি ১৫ সেকেন্ডে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *