মকর সংক্রান্তিতে বাড়িতে তৈরি করে ফেলুন বিশেষ দুই পিঠে

নিউজ ডেস্ক: সামনেই মকর সংক্রান্তি। আর মকর সংক্রান্তি মানে পিঠেপুলি উৎসব। তবে গতে বাধা জিনিস খেতে কারোরই ভালো লাগেনা তাই সব সময় মন চাই একটু নতুনত্ব কিছু। তাই এইবার পিঠে উৎসবে গতে বাধা দুধপুলি, পাটিসাপটা ছেড়ে বাড়িতে তৈরি করে ফেলুন  তেলেভাজা পিঠে, গোকুল পিঠে। যা খেতে খুবই সুস্বাদু।

গোকুল পিঠে

উপকরণ

গুড়- এক কাপ ,

এলাচ গুঁড়ো- আধ চা চামচ,

খোয়া ক্ষীর, 

ময়দা,

সুজি,  

 ঘি, 

চিনি, 

নারকেল কোরা, দুধ, এবং জল – পরিমাণ মত

প্রণালী

প্রথমে নন-স্টিক একটু প্যান নিয়ে তাতে খোয়া ক্ষীর, নারকেল কোরা, গুড়, এলাচ গুঁড়ো, ময়দা, সুজি, দুধ, চিনি ও পরিমাণ মতো জল দিয়ে  মিশিয়ে নিন। এরপর ওই মিশ্রণটি  ভাল করে নেড়ে মন্ড বানান।  তারপর হাতের তালুতে একটু ঘি মাখিয়ে নিয়ে ওই মন্ডগুলিকে নিয়ে গোল গোল বা চ্যাপ্টা আকৃতির বল তৈরি করুন। এরপর ঘি দিয়ে ভাল করে ভেজে নিন বলগুলিকে। একটু লালচে করে ভেজে নিয়ে চিনির রসের মধ্যে ডুবিয়ে রেখে দিন পনেরো মিনিট। এরপর চিনির রসের থেকে তুলে নিয়ে প্লেটে পরিবেশন করুন গোকুল পিঠে।

 তেলে ভাজা পিঠে

উপকরণ

আতপ বা গোবিন্দভোগ চালের গুঁড়ো, 

ময়দা, 

দুধ, 

পাকা কলা,

খেজুরের গুড়,

নারকেল কোরা,

 সুজি,

  চিনি, 

  নুন, 

সাদা তেল- ভাজার জন্য। 

প্রণালি

প্রথমেই  চালের গুঁড়ো চেলে নিন। এরপর  এই চালের গুঁড়োর মধ্যে  পরিমাণ মতো ময়দা, সুজি, নারকেল কোরা, পাকা কলা, চিনি, নুন ( পরিমাণ মত), খেজুরের গুড় (দুই কাপ), দুধ, এই সমস্ত উপকরণগুলো ভাল করে মিশিয়ে নিন। এরপর একটি ঘন ব্যাটার তৈরি করুন মিশ্রণটির। তবে লক্ষ্য  রাখবেন যেন ব্যাটারটা বেশি পাতলা না হয়ে যায়।

এরপর কড়াইতে তেল দিয়ে গরম করে নিন।  তারপর একটি  ছোট হাতায় এক হাতা করে  ব্যাটার দিতে থাকুন। মাঝারি আঁচে রেখে ভেজে নিন পিঠেটি।  লাল করে পিঠের দুই দিক ভাল করে ভেজে নিন। এরপর পিঠেটি তেল থেকে তুলে প্লেটে রেখে দিন।  তেলে ভাজা পিঠে খেয়ে পরিবারের সাথে আনন্দের সহিত পালন করুন মকর সংক্রান্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.