একটি পাকা কলা নিয়ে সেটিকে পেস্ট করে মধু দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে চুলে মাখুন

নিউজ ডেস্ক: রুক্ষ ভাব চুলের সৌন্দর্যতা কেড়ে নিচ্ছে প্রতিনিয়ত। নিষ্প্রাণ হয়ে পড়েছে চুল।যার ফলে  চুল ভেঙে যাওয়া, চুল  পড়া, চুলের আগা ফেটে বিবর্ণ হয়ে পরা ইত্যাদির সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়।চুলে রুক্ষ ভাব দূর করে চুল ঝলমলে ও সিল্কি ভাব আনতে জেনে নিন ৭ টি টিপস।

চুলের রুক্ষ ভাব দূর করতে দই এর জুড়ি মেলা ভার।তাই চুলে লাগান দই।প্রথমে পরিমাণ  দই  নিয়ে সেটিকে ভালো করে  ফেটিয়ে নিন।তারপর  চুলের গোড়া থেকে আগা পর্যন্ত ওই দই লাগিয়ে রেখে দিন ৩০ মিনিটের জন্য।এরপর শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।এতে চুল নরম ও মসৃণ হবে।

একটি পাকা কলা নিয়ে সেটিকে পেস্ট করে  তার মধ্যে মধু দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন।এরপর ওই মিশ্রণটিকে ভালো করে চুলে লাগিয়ে রেখে দিন ২০ মিনিটের জন্য।তারপর  ভেষজ শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন চুল। এতে দূর হবে চুলের রুক্ষতা ।

এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে চুলে লাগান ডিমের প্যাক। একটি পাত্রে ডিমের হলুদ অংশ নিয়ে সেটিকে ভালো করে ফেটিয়ে নিয়ে তার মধ্যে টক দই মিশিয়ে নিন।এরপর ওই মিশ্রণটি চুলে লাগিয়ে রেখে দিন শুকনো পর্যন্ত। তারপর  শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন চুল।

অতিরিক্ত তাপের কারনে চুলে রুক্ষতা দেখা দেয়। তবে যেকোনো স্টাইলিং করতে চুলে হিট দিতেই হয়। তাই এই রুক্ষ ভাব দূর করতে চুলে অবশ্যই লাগান সিরাম কিংবা  হিট স্প্রে। এতে চুল রক্ষা পাবে।

আপনারা যদি চুলে ঘন ঘন শ্যাম্পু ব্যবহার করেন তাহলে এক্ষুনি এই অভ্যাস ত্যাগ করুন।কারন এতে  চুল দ্রুত রুক্ষ হয়ে পড়ে। সপ্তাহে দুই বা তিনবার শ্যাম্পু ব্যবহার করা উচিত।

এই সমস্যা দূর করতে নারকেল তেলের সাথে ক্যাস্টর অয়েল মিশিয়ে নিয়ে চুলে লাগিয়ে  কিছুক্ষণ ম্যাসাজ করে রেখে দিন। ২০ মিনিট পর  শ্যাম্পু করে নিন। এতে চুলের রুক্ষতা দূর হওয়ার সাথে সাথে চুল পড়ার সমস্যাও কমবে।

শ্যাম্পু করার পর অবশ্যই চুলে লাগানো উচিত কন্ডিশনা। চায়ের লিকার দিয়ে ধুয়ে নিতে পারেন চুল। এটি প্রাকৃতিক কন্ডিশনার হিসাবে কাজ করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.