ভারতের উচিত বারাক-৮ ও আকাশ-এনজি এর ব্যপক প্রোডাক্সান শুরু করা। আয়রন ডোমের সাফল্যের পর এমন কথা কেন বলা হচ্ছে?

নিউজ ডেস্কঃ ইসরায়েলের ডিফেন্স সিস্টেম যে কতোটা কার্যকারী তা আর নতুন করে কিছু বলার নেই। কারন তাদের এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম বিরাটভাবে যদি কার্যকারী না হত তা হলে পুরো ইসরায়েল আজ শ্মশানে পরিনত হত। গাজার ছোড়া রকেট গুলিকে তার যেভাবে মাঝ আকাশে রুখে দিয়েছে তা সত্যি প্রশংসনীয়। আর তাদের এই এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম হাতে রয়েছে ভারতবর্ষের হাতে, এবং রাশিয়ার এস ৪০০ এর থেকে বেশি যে কার্যকারী তা ইতিমধ্যে একাধিকবার প্রমাণিত হয়েছে।

ইসরায়েল আজ থেকে বেশ কয়েক বছর আগে জানিয়েছিল যে তাদের নৌবাহিনীর একটি যুদ্ধজাহাজ থেকে তাদের বারাক ৮ এর পরীক্ষা করে। আর এই এয়ার ডিফেন্স সিস্টেমের রেঞ্জ ছিল ১০০ কিমি, অর্থাৎ ১০০ কিমি এ্যকুয়েরেসিতে হিট করে। তবে এখানে সবথেকে বড় কথা হল এই যে তাদের এই বারাক ৮ এর প্রশংসা করতে গিয়ে তারা এটিকে “নেভাল আয়রন ডোম” আক্ষা দিয়েছিল। 

ভারতবর্ষের অনেক বিশেষজ্ঞ জানিয়েছিলেন যে ইসরায়েলের এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম রাশিয়ার এস ৪০০ থেকে অনেক দিক থেকেই ভালো। কারন কিছু মাস আগে আর্মেনিয়া এবং আজারবাইজানের যুদ্ধে আর্মেনিয়ার নিক্ষেপ করা একটি ব্যালেস্টিক মিসাইলকে ইসরায়েলের এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম বারাক ৮ ধ্বংস করে নিজেদের ব্যটেল প্রুভেন হিসাবে প্রমাণিত করে। রেঞ্জ ছাড়া এই এয়ার ডিফেন্স সিস্টেমের সাফল্যতা রাশিয়ার এস এস ৪০০ এর নেই। বিশেষজ্ঞদের মতে ভারতের উচিত বারাক-৮ ও আকাশ-এনজি এর ব্যপক প্রোডাক্সান শুরু করা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *