ষষ্ঠ প্রজন্মের বিমানের পরীক্ষা শেষ। পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধবিমানের বদলে এবার ষষ্ঠ প্রজন্মের যুদ্ধবিমান আনার পথে আমেরিকা

নিউজ ডেস্কঃ আমেরিকার যুদ্ধবিমান যে বাকি দেশের থেকে সর্বদা এগিয়ে থাকে তা বলাই বাহুল্য। সত্যি কথা বলতে পৃথিবীতে এখনও কোন দেশ নেই যারা আমেরিকার পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধবিমানের সাথে টক্কর দেবে। আসলে আমেরিকার পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধবিমান এফ ২২ র‍্যাপ্টরের মুখোমুখি হওয়ার ক্ষমতা এখনও কোন দেশের যুদ্ধবিমানের হয়নি। রাশিয়া এবং চীন পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধবিমান তৈরি করলেও আমেরিকার এফ ২২ র‍্যাপ্টরের মুখোমুখি সক্ষম নয়।

প্রায় ২ দশক আগেই পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধবিমান সামনে নিয়ে এসেছিল আমেরিকা, অর্থাৎ পৃথিবীর বাকি দেশের থেকে প্রায় ২ দশক এগিয়ে তারা। F-22 র‍্যাপ্টর, শত্রু পক্ষের শিরদাঁড়া হিম করে দিতে নামটাই যথেষ্ট। আমেরিকা এবার তাদের এই পঞ্চম প্রজন্মের যুদ্ধবিমান F-22 কেই পরিবর্তন করতে চলেছে।

আমেরিকার বায়ুসেনা ইতিমধ্যে ষষ্ঠ প্রজন্মের যুদ্ধবিমান তৈরি করে ফেলেছে, অর্থাৎ তৈরি করার পর পরীক্ষা করাও শেষ। আমেরিকার বায়ুসেনা জানিয়েছে যে তাদের এই যুদ্ধবিমানের ডিজাইন, তৈরি ও টেস্ট করতে মাত্র ১ বছর সময় লেগেছে।

আমেরিকা Next Generation Air Dominance (NGAD) নামে একটি প্রজেক্টে কাজ করছে, এই প্রজেক্টের আওতায় তারা বিভিন্ন ধরনের ষষ্ঠ প্রজন্মের যুদ্ধবিমান তৈরি করছে এবং সবথেকে ভালো ভার্সনটিকে সার্ভিসে আনবে। নতুন এই গোপন যুদ্ধবিমানটি টি NGAD এরই অংশ।

আমেরিকান এয়ারফোর্স এই রহস্যময় এয়ারক্রাফট সম্পর্কে কোন তথ্য আমেরিকা প্রকাশ করে নি এখনও পর্যন্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *