“আগামিকাল পাকিস্তান সূর্য উদয় দেখতে পাবেনা”। আমেরিকাকে কেন এমন ধমক দিয়েছিলেন অটল বিহারী বাজপেয়ী?

নিউজ ডেস্কঃ একজন আন্তর্জাতিক নেতার যে বিশেষ কিছু ক্ষমতার দরকার হয়, তা আর নতুন করে কিছু বলার নেই। ইন্দিরা গান্ধী থেকে শুরু করে, অটল বিহারী বাজপেয়ী এবং সম্প্রতি নরেন্দ্র মোদী সারা বিশ্বকে ইতিমধ্যে দেখিয়েছে যে ভারত পৃথিবীর কারও লাল চোখকে পরোয়া করেনা। তবে অটল বিহারী বাজপেয়ীর মতো প্রধানমন্ত্রী আমেরিকার লালচোখকে উপেক্ষা করে কিভাবে পাকিস্তানকে উচিৎ শিক্ষা দিতে হয় তা দেখিয়েছিলেন।

১৯৯৯সালে সেইসময় কার্গিলে যুদ্ধ চলছে ভারী মাত্রায়! ভারতের প্রধানমন্ত্রী শ্রী অটল বিহারী বাজপাই এর কাছে ফোন করেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট। প্রেসিডেন্ট অফ আমেরিকা জানায় ভারতকে যথাশীঘ্র সমস্ত মিলিটারি স্টেপ নেওয়া বন্ধ করতে হবে।

কারন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী মুশারফ আমেরিকাকে জানিয়েছেন যে তারা পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার করতে চলেছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী সেইসময় দৃঢ় কন্ঠে জবাব দিয়েছিলেন যে ” আমি এই যুদ্ধে ২০ থেকে ৫০ শতাংশ ভারতীয়র জীবন ত্যাগ দিতে রাজি আছি, কিন্তু এতটুকু বিশ্বাস দিচ্ছি আপনাকে যে, আগামিকাল পাকিস্তান সূর্য উদয় দেখতে পাবেনা”।

এই হচ্ছে নেতা। ভয়কে বাদের খাতায় রেখে দিয়ে শত্রুর চোখে চোখ রেখে কথা বলার দক্ষতা।

আর এই সময়টা হল সেইসময় ১৯৯৯ যখন ভারত সবে মাত্র পরমাণু শক্তি হাতে পেয়েছে। তবে একটা কথা এখন হলফ করে বলা যেতে পারে যে এখন ভারত পাক যুদ্ধ হলে, ভারত নিজের ১শতাংশ ক্ষতি না করে পাকিস্তানকে পৃথিবীর মানচিত্র থেকে মুছে ফেলার ক্ষমতা রাখে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *