১০ গুন বেশি গতি সম্পন্ন অস্ত্র নিয়ে চীনের সাবমেরিনকে জলার তলায় ডুবিয়ে দেবে এবার নৌবাহিনী

নিউজ ডেস্কঃ জল থেকে স্থল কোনও কিছুতেই পিছিয়ে থাকবেনা ভারতীয় সেনা। কিছু মাস আগেই জানানো হয়েছিল যে ডিআরডিও তাদের স্বপ্নের প্রোজেক্টের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এবং সবঠিক থাকলে হয়ত সারা পৃথিবীতে ভারত এমন কিছু আবিষ্কার করবে যা সকলকে হতচকিত করে দিতে পারে। এবার জলের মধ্যেই শত্রুপক্ষের সাবমেরিনকে ডুবিয়ে দেবে এই নতুন অস্ত্র। এই ধরনের অস্ত্র বিদেশে প্রচুর দেশের হাতেই রয়েছে। তব ভারতের মতো এতো বিধ্বংসী বা এরকম রেঞ্জের অস্ত্র তাদের হাতে নেই।

DRDO SMART নিয়ে বেশ কিছু তথ্য

DRDO SMART এর মত অন্য কোনো দেশের এরকম সিস্টেম আছে কিনা অনেকে জিজ্ঞাসা করছেন। উত্তর হল হ্যাঁ আছে। তবে ৬৫০কিমির ধারে কাছে না।

আমেরিকা, চীন ও রাশিয়ার এমন মিসাইল আছে। তবে এরা ক্রুজ মিসাইলের মত সিস্টেম ব্যবহার করেছে। ভারত সেখানে ডাইরেক্ট ব্যলিস্টিক মিসাইলের ওপর Advanced Light Weight Torpedo “সায়না” বসিয়ে দিয়েছে। তাই রেঞ্জ অত বেশি। প্রাথমিক ভাবে মনে করা হচ্ছে শৌর্য মিসাইলের স্টেজকে মডিফাই করে ব্যবহার করেছে।

এটা একটা সোজা কথায় গেম চেঞ্জার। পুরো চীনের নৌবাহিনী এর জন্য হুমকির মধ্যে চলে এলো। আর ব্রাহ্মোসের VLS তে এই নতুন SMART মোতায়েন সম্ভব।

এখন সব থেকে বড় যে জিনিসটা সেটা হল ডাটা লিংক। ব্যপারটা হল কোথাও ভারতের পি-০৮আই নেপচুন প্যট্রলিং করছে। কোনো জায়গায় সাবমেরিন বা শিপকে ট্র্যক করলো। এই বার প্রয়োজন হবে একটি শক্তিশালী ডাটা লিংকের। যার ফলে SMART কে টার্গেট ডাটা এত দুর থেকে পি-০৮ পাঠাতে সক্ষম হবে। যদিও ইসরোর স্যটেলাইট সেই কাজ করবে। তবে ডাটা লিংক শক্তিশালী হওয়া প্রয়োজন।

ATLWT ইতিমধ্যে মায়ানমার ক্রয় করেছে। তাই এটাও ভরসাযোগ্য অস্ত্র।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *