খাওয়ার এবং মস্তিস্কের মধ্যে সম্পর্ক ঠিক কি? জানলে অবাক হবেন

এ এন নিউজ ডেস্কঃ যদি আপনাকে জিজ্ঞাসা করা হয় যে এই পৃথিবীর কঠিনতম কাজ কোনটি? তাহলে আপনাদের মধ্যে কেউ কেউ বলবেন যে জীবন সংগ্রাম হলো সবচেয়ে কঠিন। হ্যাঁ,তা ঠিকই তবে মানুষের মস্তিষ্ক হলো সবচেয়ে ধাঁধানো বিষয়।

মানুষের মস্তিষ্ক হলো সবচেয়ে জটিল, এটি প্রতিমুহূর্তে নিজের ভিতরের ভাবনাশক্তিকে পাল্টায়, প্রতি সেকেন্ডে। মানব দেহের ভিতরে সবচেয়ে কৌতূহল প্রদানকারী অঙ্গ হলো আমাদের মস্তিষ্ক, অন্তত বিজ্ঞানীরা তাই মনে করেন।

পরিবর্তনকারী এই মস্তিষ্কে  দৈনন্দিন ভালোবাসার জিনিসের প্রতি অভ্যেস নিজে থেকে চলে আসে। চেহারা সুস্থ ও সবল রাখতে কিছু প্রয়োজনীয় সূচি বেছে আহার করতে হয়। কিন্তু নিত্যদিনের ভালোবাসার খাবারগুলো কি অতসহজে মেনে নেবে এই মীরজাফরের আচরণ, আসলে আপনার পছন্দের খাবার মানবে না আপনার মস্তিষ্ক।

তাহলে আপনাকে কি করতে হবে?

বিশেষজ্ঞদের মতে আপনাকে প্রথমে যেটা শিখতে হবে সেটা হলো এড়িয়ে যাওয়া। যদি আপনি আপনার ওজন কমাতে চান তবে একটি সময় বেছে নিন যেটুকু সময়ের মধ্যে আপনি নিয়মিত মেদদায়ক খাবার এড়িয়ে যাবেন।

কিছু কিছু খাবার আছে যা মানুষ সাধারণত খেয়ে ভালো অনুভব করে, ক্লান্তি সরে যায়, বিশেষজ্ঞদের মতে ডায়েটে থাকাকালীন আপনি এগুলো খেতেই পারেন যদি তা নিয়মিত না হয়।

একটা জিনিস আপনার যেনে রাখা দরকার। ডায়েট ফুডের থেকে বেশি ফাস্টফুড খেলে মস্তিষ্কের ডোপামাইন নির্গত হয় যা আপনাকে ভালো রাখে তাই বিশেষজ্ঞদের মতে বছরে নির্দিষ্ট কিছু দিন মেনে যদি আপনি ফাস্টফুড বা বেশি তৈলাক্ত রান্না খান তাহলে তাতে খুব ক্ষতি নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *