মুখার্জী বাড়িতেও ভ্যালেন্টাইন ডের ছোঁয়া

সুমিত, কলকাতাঃ “বাতাসে বহিছে প্রেম, নয়নে লাগিল নেশা, কারা যে ডাকিল পিছে বসন্ত এসেগেছে”। ঠিক তাই শীতকালের গমন এবং বসন্তের আগমন। বাতাসে আমের বোলের গন্ধ। চারিদিকে প্রেমের আভাস। আর কয়েকদিন পরেই আবার ভ্যালেন্টাইন ডে।আপামর বাঙালি থেকে থেকে শুরু করে গোটা পৃথিবী জুড়ে এটা একটা প্রেমের সময়। আর প্রেমের দিন হিসাবে অনেকেই ১৪ই ফেব্রুয়ারি বা ভ্যালেন্টাইন ডে কে বেছে নেন।

একসময় ভ্যালেন্টাইন ডে বলে কোনও দিনই ছিলনা আপামর বাঙালির কাছে। ছিলনা ক্যাটবেরি, চকলেট কিংবা গোলাপ ফুল দেওয়ার রেওয়াজ। কিন্তু হটাথই বছর কয়েক আগে থেকে ১৪ই ফেব্রুয়ারি। ভ্যালেন্টাইন ডে কিংবা একে অপরকে ভালোবাসার দিন বলে নির্বাচিত করা হয়েছে। “প্রেম চিরদিন কাঁদিয়ে গেছে, কেঁদেছে মানুষ তবু ভালো তো বেসেছে” বিখ্যাত এই গানটি আজও আপামর বাঙালির মুখে মুখে। তাই ভ্যালেন্টাইন ডে তে মনের মানুষকে আরও কাছে আনার জন্য গোলাপ ফুলের পাশাপাশি ক্যাটবেরি, চকলেটের কদরও অনেকখানি বেড়েগেছে সবার কাছে।

১৪ই ফেব্রুয়ারি ভ্যালেন্টাইন ডে ঠিক তাঁর ২২ দিন পর মুক্তি পাবে “মুখার্জী দার বৌ”। আর ৮ই মার্চ মুক্তি পাওয়া ছায়াছবিতে দেখা যাবে ভালোবাসার কাহিনী। যেখানে কেউ হয়ত ভালোবাসে বিয়ে করেছেন বা কেউ আবার পরিবারের গুরুজনদের পরামর্শে সাত পাঁকে বাঁধা পড়েছেন। তবে নিজের পছন্দই হোক কিংবা বাবামায়ের পছন্দই হোক না কেন? তাদের প্রত্যেকের জীবনেই রয়েছে অফুরন্ত ভালোবাসা আর এই অফুরন্ত ভালোবাসা কিভাবে নিজের জীবনে প্রতিষ্ঠিত করা যায় তা জানতে হলে দেখতেই হবে “মুখার্জী দার বৌ ছায়াছবিতে”।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *