শারিরীক সঙ্গম মৃত্যু। কিভাবে?

নিউজ ডেস্ক – শারীরিক মিলন হল প্রকৃতির একটি অঙ্গ। বংশবৃদ্ধি করতে বা নিজের সঙ্গীকে সুখী করতে প্রায় সেই মানুষ যৌন সঙ্গমে লিপ্ত হন। তবে এবার এই যৌনতাই মৃত্যুর পথ হয়ে দাঁড়াল এক তরুণের কাছে। দীর্ঘক্ষণ যৌনতা উপভোগ করার আশাতেই মৃত্যু হল সুস্থ সবল এক তরুণীর। এমন এক আজব ঘটনা ঘটেছিল কলম্বিয়ায় ৩২ বছরের তরুণী সঙ্গে। তবে তরুণীটি নিজের আত্মীয় পরিসরে দ্য বিস্ট নামে পরিচিত ছিলেন। এর পেছনে রয়েছে এক কারণ। 

লোকোভাষ্য মতে জানা যায় দীর্ঘদিন ধরে বহু যুবকের সঙ্গে যৌনতার সম্পর্ক গড়েছিলেন তরুণী। তবে যে যুবকটি তার মৃত্যুর আগের প্রেমিক ছিলেন তার সঙ্গে এক উদ্দাম যৌনতাপূর্ণ রাত কাটানোর ইচ্ছা প্রকাশ করে। প্রেমিকও রাজি হয়ে যায় তার কথায়।  যেমন কথা তেমন কাজ। একদিন হোটেলে খাওয়া দাওয়ার সঙ্গে নেশায় বুঁদ হয়ে হোটেলের রুমে সোজা বিছানায় গিয়ে নিজেদের যৌন ক্ষুধা মেটাতে শুরু করেন তারা। কিন্তু এখানে দেখা দেয় বিপত্তি। ‌ দীর্ঘ ৫ ঘন্টা ধরে যৌন খেলার পর অসুস্থ বোধ করতে থাকে ওই তরুণী। সেই কথাটি তার প্রেমিককে জানালে তৎক্ষণাৎ হোটেলের জরুরী নম্বরে ফোন করে কর্মীদের ডাকে। এরপরই তারা রুমে এসে দেখে সম্পূর্ণ নগ্ন অবস্থায় শুয়ে রয়েছে ওই তরুণী। এরপরই কোনরকম কালবিলম্ব না করে অ্যাম্বুলেন্স দেখে তাকে স্থানীয় হাসপাতালে পাঠানো হয়। এরপরই প্রাথমিক চিকিৎসা করেন চিকিৎসকরা জানান তার মৃত্যু হয়েছে। 

পরবর্তীতে বিষয়টি পুলিশের অধীনস্থ গেলে মৃতদেহের ময়নাতদন্ত করান তারা। এরপরই পোস্টমর্টেম রিপোর্টে দেখা যায় অধিকমাত্রায় অ্যালকোহল ছিল তরুণীর শরীরে। এই রিপোর্ট দেখে পুলিশের অনুমান নিজের সঙ্গির সাথে যৌনতার উদ্দাম শিখরে পৌঁছাতেই ড্রাগস নিয়েছিল তরুণী । তবে মৃত্যু কি ড্রাগসের জন্য হয়েছে নাকি দীর্ঘক্ষন ধরে শারীরিক মিলনে থাকার কারণ হয়েছে বিষয়টি সম্পর্কে সম্পূর্ণরূপে নিশ্চিত নয় পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.