ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘতম বছর ৩৬৫ দিনে নয় ৪৪৫ দিনে। কেন তৈরি করেছিলেন রোমান সম্রাট?

ছোটবেলা থেকে আমরা ৩৬৫ দিনে এক বছর ট্রেনে এসেছি এবং বইয়ের পাতাতেও পড়ে এসেছি। যার কারণে চোখের পলকে যেন একটা বছর চলে গেল মনে হয় আমাদের। কিন্তু বেশ কয়েক বছর আগে আসলে ক্যালেন্ডার দেখলে চোখ কপালে উঠবে সকলের। কারণ সেই সময় ৩৬৫ দিনে নয় বরং ৪৪৫ দিনে হতো এক বছর। বিষয়টি তাজ্জব লাগলেও বাস্তবে সত্য।  কারণ রোমান ক্যালেন্ডার ছিল সবথেকে জটিল ও অপরিষ্কার ক্যালেন্ডার। কিন্তু ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি দিনের বছর রোমান সম্রাট জুলিয়াস সিজারের সময়কালেই। 

সময়টা ছিল ৪৬ খ্রিস্টপূর্বাব্দ এবং এই দীর্ঘতম বছরটি বিখ্যাত রোমান সম্রাট জুলিয়াস সিজার তৈরি করেছিলেন। খ্রিস্টপূর্ব ৪৬ সাল ছিল ৪৪৫ দিনের! কারণ রোমান ক্যালেন্ডার ১২ মাস এবং ৩৫৫ দিনে ছিল। রোমানরা জানত যে সৌর বছর ৩৬৫ দিন ৬ ঘন্টা দীর্ঘ, তাই তাদের অধিবর্ষকে সৌর বছরের সাথে মেলাতে অতিরিক্ত ২২/২৩ দিন যোগ করতো। তখন ২ বছর পর অধিবর্ষ হতো। সেই অনুযায়ী রোমান ক্যালেন্ডারে বছরের দিন সংখ্যা হতো ৩৫৫ দিন, ৩৭৭ বা ৩৭৮ দিন। এই  জটিলতম ক্যালেন্ডার আরো জটিল করে তুলেছিল তখনকার রোমান পুরোহিতেরা। রোমান পুরোহিত পন্টিফেক্স ম্যাক্সিমাস নিজ সুবিধার্থে অধিবর্ষে আরেকটি নতুন সংযোজন করেন। যখন তার মিত্র দল শাসন করবে তখন তিনি অধিবর্ষকে দীর্ঘ করে দিতেন, আর বিরোধীদল শাসনে আসলে তা ছোট করে দিতেন।

যেহেতু ক্যালেন্ডারে এমন জটিলতা থাকতো তাই সাধারণ মানুষটা ওই ক্যালেন্ডারের দিনক্ষণ খুব একটা মনে রাখতেন না। পরবর্তীতে, ১৫৮২ খ্রিষ্টাব্দে পোপ ত্রয়োদশ গ্রেগরি প্রবর্তন করেন নতুন এক বর্ষপঞ্জির। তিনি হিসাব করে বের করে দেখেন, জুলিয়ান ক্যালেন্ডারে প্রতিবছর ১১ মিনিটের গরমিল থাকায়  ইস্টার ক্রমেই পিছিয়ে যাচ্ছিল। তাই গ্রেগরি নতুন ক্যালেন্ডার নির্মাণ করেছিলেন। তবে ১৭ শতাব্দী পর্যন্ত ফ্রান্স, ব্রিটেন কিংবা জার্মানির কেউ এই নতুন ক্যালেন্ডার গ্রহন করেনি। তারা মনে করতো এগুলো সব ক্যাথলিকদের ষড়যন্ত্র। এমনকি রাশিয়াতে তো ১৯১৭ সালের বলশেভিক বিপ্লবের আগ পর্যন্ত জুলিয়ান ক্যালেন্ডার ছিল রাশিয়ার সরকারী ক্যালেন্ডার। যদিও পরবর্তিতে আস্তে আস্তে মানুষ নতুন ক্যালেন্ডার গ্রহণ করার অভ্যাস গড়ে তুলেছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.