হৃদপিন্ড ঠিক রাখতে দারুন কাজ করে ভিটামিন

ভিটামিন বি ১২ হল শক্তি যোগানের একটি অন্যতম উপাদান। ভিটামিন বি ১২  কোষকে খাদ্য সরবরাহের পাশাপাশি স্বাস্থ্যবান করতে সহায়তা করে। এমনকি যদি আপনার শরীরের কোষ ক্ষুধার্ত কারনে শরীর  দুর্বল ও ক্লান্ত হয়ে যায়।তাহলে  এটি পুষ্টি উপাদান থেকে কোষে শক্তি মুক্ত করে এবং শরীরের ভারসাম্য রক্ষা করতে সাহায্য করে। এর ফলে এনার্জি বৃদ্ধিতে পায় যা আপনার চিন্তা করার জন্য ও চলাফেরা করার জন্য প্রয়োজনীয়।

২। হৃৎপিন্ডকে সুরক্ষা দেয়

ভিটামিন বি ১২ হৃৎপিন্ড এবং কার্ডিওভাস্কুলার সিস্টেমের সুস্থ রাখার জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। এই ভিটামিনের একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ হচ্ছে রক্ত থেকে হোমোসিস্টিন নামক বিপদজনক প্রোটিন সরিয়ে ফেলা। তাই হৃদপিন্ডকে সুস্থ রাখতে হলে ভিটামিন বি ১২ পর্যাপ্ত পরিমাণে গ্রহণ করা একান্তভাবে প্রয়োজন।

৩। স্নায়ুর ক্ষতি প্রতিরোধ করে

ভিটামিন বি ১২ আমাদের শরীর সুস্থ রাখার জন্য বিশেষ ভূমিকা পালন করে।আর আর মধ্যে একটি হল মৃত স্নায়ুকে পুনর্জীবিত  করা।আমারা জানি যে আমাদের টক্সিন ও ফ্রি র‍্যাডিকেলের হাত থেকে সুরক্ষিত রাখার জন্য মায়েলিন শিথ নামের একটি আবরণ দ্বারা আবৃত থাকে।যদি কোন কারনে স্নায়ুর এই আবরণ নষ্ট হয়ে গেলে স্নায়ু মরে যেতে পারে।যার ফলে এই মৃত স্নায়ু মস্তিষ্কে এবং মস্তিষ্ক থেকে সংকেত পাঠাতে বাঁধার সৃষ্টি করে।আর এই মৃত স্নায়ুকেই পুনর্জীবিত করতে সাহায্য করে ভিটামিন বি ১২।

ভিটামিন বি১২ এর অভাবে যেসব রোগ হয়

১)পারনিসিয়াম আয়নিমিয়া নামেক রক্তল্পতা রোগ হয়।

২)নি:শ্বাস নিতে সমস্যা বোধ করা।

৩)স্বাভাবিক পুষ্টি ও বৃদ্ধি ব্যাহত হয়।

৪) ভিটামিন বি১২ এর অভাবে মাথা ঘোরার মতো সমস্যা সৃষ্টি হয়।

৫)দৃষ্টিশক্তি ক্ষীন হয়ে পরে।  তবে ভিটামিন বি১২ এর অভাব পূরন করতে হলে বেশি করে ভিটামিন বি১২ যুক্ত খাদ্য খান।যেমন-যকৃত,বৃক্ক, দুধ, ডিম,স্ট্রেপ-টোমাইসিস,গ্রিসিরাম নামক ছত্রাক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.