৮৪ জন মহিলাকে ধর্ষণ করার পর তাদের চাকরি কিংবা পাথর দিয়ে আবার কখনো কুড়ুল দিয়ে কুপিয়ে খুন। কোন দেশের ঘটনা জানেন?

নিউজ ডেস্ক –  গোটা পৃথিবীতে নারী নির্যাতন কিংবা খুনের ঘটনা অচেনা নয়। অধিকাংশ দেশেই দেখা গিয়েছে মহিলাদের নিশংসভাবে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে।  কিন্তু সম্প্রতি এমন এক সিরিয়াল কিলার নিজের জবানবন্দি প্রকাশ করেছেন যা দেখে শিউরে উঠবে গোটা পৃথিবী। কারণ সেই সিরিয়াল কিলার নিজের মুখে স্বীকার করেছেন যে তিনি নিজের জীবন দশায় ৮৪ জন নারীকে ধর্ষণ করে হত্যা করেছে। তবে যাদের খুন করেছে তাদের সকলেরই বয়স ছিল  ১৮-৫০ মধ্যে। কার্যত পাশবিক  সিরিয়াল কিলারের নাম মিখাইল পোপকভ। 

পুলিশের হাতে গ্রেফতার হতেই পোপকভ  জানায়,  তিনি মহিলা ধর্ষণ করার পর খুন করে পাশবিক শাস্তি পান। যার কারণে ৮৪ জন মহিলাকে ধর্ষণ করার পর তাদের চাকরি কিংবা পাথর দিয়ে আবার কখনো কুড়ুল দিয়ে কুপিয়ে খুন করেছে। এই নিহত মহিলাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন একজন মহিলা পুলিশও। যদিও  পোপকভের মতে ৫৯ জনকে হত্যা করেছে। কিন্তু পুলিশের গণনা  অনুযায়ী ১৯৯২-২০১০ সাল পর্যন্ত টানা ১৮ বছর ধরে হত্যা করার সংখ্যা মূলত ৮৪।  বর্তমানে পুলিশের হেফাজতে রয়েছে সিরিয়াল কিলার। 

Leave a Reply

Your email address will not be published.