পা কুয়া দর্পণ থেকে শুরু করে লাফিং বুদ্ধ। ভাগ্য বদলাতে ঘরের কোথায় রাখবেন?

নিউজ ডেস্কঃ আয়না, হোক বা দরজা, ফেংশ্যুই র নিয়ম অনুযায়ী বাড়িতে সঠিক জায়গায় সঠিকভাবে রাখতে পারলেই বদলাতে পারে ভাগ্য। আর ফেংশ্যুই র নিয়ম মেনে চলে উপকার পেয়েছেন প্রচুর মানুষ।

পা কুয়া দর্পণঃ ক্ষতিকারক শক্তিগুলোকে এই আয়নাটি আপনার ঘরে ঢুকতে বাঁধা দেয়।তাই বাড়ির মূল দরজার বাইরে রাখা উচিত।

খাওয়ার ঘরে আয়নাঃ খাওয়ার ঘরে কোন বড় আয়না বা দেওয়াল আয়না থাকা বাঞ্ছনীয়।ফেং শুই এর মতে এটি ভোজন ভাগ্যের অতি উৎকৃষ্ট নিয়ম।যদি খাওয়ার ঘরে সুস্বাদু খাবারের ছবি বা টেবিলের ওপর কাচের বাটিতে বা পাত্রে তাজা ফল রেখে দিতে পারেন।আপনার বাড়িতে কখনও খাদ্যের অভাব হবে না।

গোল্ড ফিস সহ অ্যাকুরিয়ামঃ আপনার ঘরে অ্যাকুরিয়ামে গোল্ড ফিস রাখতে পারলে তা হবে সউভাগ্য বৃদ্ধির এক মহৎ উপায়।আপনি ৯ টা মাছ রাখবেন তার মধ্যে ৮ টা হবে লাল বা সোনালি রঙের আর একটা হবে কালো রঙের।শয়নকক্ষে বা রান্না ঘরে, বাথরুমে না রেখে এগুলো বামুন বসার ঘরের পূর্ব, দক্ষিন-পূর্ব বা উত্তর দিকে।

দরজার হাতলে মুদ্রা বা ঘণ্টাঃ দরজার হাতলে ফেং শুই মুদ্রা বা ঘণ্টা রাখা মানে ধনভাগ্যকে সর্বোৎকৃষ্ট উপায়ে বাড়িতে ডেকে আনা।আপনি তিনটি পুরানো চিনদেশীয় মুদ্রা বা ঘণ্টা একটা লাল রিবনে বেঁধে সদর দরজার ভেতরের দিকে ধুলিয়ে দিন।

লাফিং বুদ্ধঃ হাস্যরত বুদ্ধ ধনদেবতার অন্যতম একজন বলে বিবেচিত হন।ইনি সৌভাগ্য, সিদ্ধি ও আর্থিক সমৃদ্ধি আনেন।হাস্যরত বুদ্ধকে স্থাপনের জায়গাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।এই মূর্তি ৩০ ইঞ্চি উঁচু কোনও জায়গায় সোজা দরজার দিকে মুখ করে বসাতে হবে।তবে এটিকে কখনও শোওয়ার ঘরে, রান্না ঘরে রাখবেন না।

তিন পা-ওয়ালা ব্যাঙঃ এটি ভীষণ সৌভাগ্যসূচক হিসাবে পরিগণিত।এর মুখ সাধারণত একটা বা তিনটি মুদ্রা থাকে।মুখে মুদ্রা সহ তিন-পাওয়ালা ব্যাঙ রাখা তাই খুব ভালো।প্রধান দরজার কাছে ভিতরের দিকে যে কোনও জায়গায় ব্যাঙটি রাখতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.