আপনার আয়ু কিভাবে বুঝবেন?

নিউজ ডেস্ক – বর্তমানে উন্নত প্রযুক্তির কারণে বহু জিনিস হওয়ার আগেই মানুষ জেনে নিতে পারে। যেমন কোন ঘূর্ণিঝড় আসার আগে হাওয়া অফিস থেকে খবর পৌঁছে যায়। আবার কোন সন্তান জন্মানোর আগে পরিবারের সদস্যরা জানতে পারেন সেটি মেয়ে হবে না ছেলে। যদিও সেটি বর্তমানে বেআইনি। অন্যদিকে চোখ রাখলে দেখা যায় ফসল কখন পুষ্টিকর হবে আর কখন অপুষ্টিকর হবে সেটাও অনায়াসে বলে দিতে পারেন বিজ্ঞানীরা। কিন্তু বর্তমানে এমন এক টেকনোলজি আবিষ্কার হয়েছে বা বিজ্ঞানীরা এমন এক তথ্য আবিষ্কার করেছেন যার মাধ্যমে কোন ব্যক্তি ঠিক কোন সময় মৃত্যু ঘটবে তা নির্ধারণ করে দিতে পারেন তারাই। অর্থাৎ দীর্ঘ সময় ধরে ভবিষ্যতের আশায় আর বসে থাকতে হবে না কাউকে। এবারের নতুন পন্থা অবলম্বন করে বিজ্ঞানীদের হাতের মুঠোয় এসেছে এমন এক জাদুকর জিনিস যার মাধ্যমে তারা অনায়াসে বলে দিতে পারছেন কোন ব্যক্তির মৃত্যু সময় কোনটি। তাহলে আসুন এত হেঁয়ালি না করে খোলসাভাবে বিষয়টি বলা যাক।

ইংল্যান্ডের এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যায়লয়ের গবেষকরা দীর্ঘদিন নানান পদ্ধতি অবলম্বন করে গবেষণা করার পর একটি সিদ্ধান্তে এসেছেন। সেটি হল জিনের মাধ্যমে কোন ব্যক্তি গড়ে ঠিক কত দিন বাঁচবে তা নির্ধারণ করা সম্ভব। তবে সেটি পারিবারিক জিন হওয়া প্রয়োজন। কারণ একমাত্র বংশ-পরম্পরা জিন বিশ্লেষণ করেই দেখা যায় যে কোন ব্যক্তি ঠিক কতদিন পর বার্ধক্যে পা রাখবে, পাশাপাশি সে কতদিন জীবিত থাকবে এমনকি তার শরীরে ঠিক কী কী রোগ বাসা বাঁধবে তাও নির্ণয় করা সম্ভব হয়েছে। তবে এই পরীক্ষাটি শুধুমাত্র একজনের উপর এক্সপেরিমেন্ট করে এই সিদ্ধান্তে আসেননি গবেষকরা। তারা রীতিমতো ১০০ জন ব্যক্তিদের উপর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তাদের শরীরের সঠিক ফলাফল দেওয়ার পরেই এটি প্রকাশ্যে এনেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.