ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ডিজিটাল মুদ্রাতে বিনিয়োগ করার নিয়ম

নিউজ ডেস্কঃ বিটকয়েনের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাচ্ছে ক্রমশ। অল্প সময়ে চড়া সুদের আশায় বিটকয়েনে বিনিয়োগের আগ্রহ বাড়াছে সকলেরই। আপনিও কি চান বিনিয়োগ করতে? কিন্তু, বুঝতে পারছেন না শুরু কিভাবে করবেন? হাজারো প্ল্যাটফর্মের মধ্যে সেরা ক্রিপ্টোকারেন্সি এক্সচেঞ্জ ওয়েবসাইট বেছে নেবেন কিভাবে? সমস্যার সমাধান করতে আজ আন্তর্জাতিক এমন ১০ টি ক্রিপ্টোকারেন্সি ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যাটফর্মের খোঁজ দেবো আমরা যেখান অনায়াসেই বিটকয়েন এবং অন্যান্য টোকেন কিনতে পারবেন আপনি।

১. কয়েনবেস

 কয়েনবেস এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং সেরা ক্রিপ্টোকারেন্সি এক্সচেঞ্জ সাইটগুলোর মধ্যে অন্যতম। কারণ, এখানে সরাসরি USD ব্যবহার করে বিনিয়োগ করা সম্ভব। আপনি বর্তমানে এই প্ল্যাটফর্মে বিটকয়েন, এথেরিয়াম এবং লাইটকয়েন সহ ৩০+ ক্রিপ্টো এবং টোকেন কিনতে পারবেন।  উপরন্তু, USDT-তে সুদ উপার্জন করার সঙ্গে সঙ্গে বিভিন্ন কার্যক্রম সম্পন্ন করার মাধ্যমে টোকেন পুরস্কার অর্জন করতে পারবেন।

এছাড়াও, নতুন কয়েনবেস অ্যাকাউন্ট চালু করার সাথে 5 ডলার বোনাস পাবেন আপনি।

২. ভয়েজার

ভয়েজার হলো ক্রিপ্টোতে বিনিয়োগ করার জন্য অন্যতম জনপ্রিয় এক প্ল্যাটফর্ম। উল্লেখ্য, ক্রিপ্টো ট্রেডের সবচেয়ে পুরনো ও বিশ্বাসযোগ্য এক্সচেঞ্জগুলির মধ্যে একটি হলো এই ভয়েজার। সম্পূর্ন অ্যাপ-চালিত এই ওয়েবসাইট তাদের কমিশন-মুক্ত ট্রেডিং এর জন্য বিশেষ ভাবে বিখ্যাত।

ভয়েজারে বড়োসর যেকোনো ক্রিপ্টো পেয়ে যাবেন আপনি। তাদের কাস্টমার সার্ভিস যেমন ভালো তেমনি সম্পদের ওপর কম্পিটিটিভ ইন্টারেস্টের হার ও প্রদান করে তারা।এছাড়া, প্রথমবারের জন্য ভয়েজারে  অ্যাকাউন্ট খুলে, ক্রিপ্টোতে $১০০ ট্রেড করলে BTC-এ আলাদা করে বাড়তি $২৫ উপার্জন করতে পারবেন আপনি।

৩.ব্লকফাই

 ব্লকফাই হলো এমন এক ক্রিপ্টোকারেন্সি ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যাটফর্ম যা প্রয়োজনে ধার দেবে আপনাকে। এমনকি হোল্ডিং এর উপর সুদ উপার্জন অব্দি করতে পারবেন আপনি। এছাড়াও, কয়েন এবং টোকেন বিক্রি করার পরিবর্তে, আপনি নিজের হোল্ডিংয়ের বদলে ধারও নিতে পারবেন এই প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে।

যদি কেবল আপনার টোকেনগুলি রেখে দিতে চান আপনি সেক্ষেত্রেও সুদ উপার্জন করা সম্ভব টোকেনগুলি থেকে। সবচেয়ে বড় ব্যাপার হলো $২৫ ডিপোজিট করে নির্দিষ্ট সময়কালের জন্য তা বজায় রাখতে পড়লে মিলবে $২৫০ পর্যন্ত বোনাস।

৪.আপহোল্ড

মাল্টিপল অ্যাসেট ট্রেড করতে চাইলে আপহোল্ড হওয়া উচিত আপনার প্রথম গন্তব্য। একটি অ্যাকাউন্ট খুলুন এবং নগদে টাকা রুপান্তরিত না করে একাধিক অ্যাসেটে তা ট্রেড করুন। ক্রিপ্টোয় আগে ট্রেড করে থাকলে আপনি নিশ্চয়ই জানেন যে অনেক কয়েন এবং টোকেন শুধুমাত্র নির্দিষ্ট জোড়ায় জোড়ায় ট্রেড করা সম্ভব। তাই, অনেকক্ষেত্রে অনিচ্ছা সত্ত্বেও  BTC বা ETH-এ ফিরে যেতে হয়। তবে, আপহোল্ডে, আপনি সরাসরি একাধিক সম্পদে ট্রেড করার সুযোগ পাবেন খুব সহজেই।

এছাড়া, Uphold ব্যবহার করে আপনি XRP, DOGE সহ আরো বিভিন্ন টোকেন ও ক্রিপ্টোয় ট্রেড করার সুযোগ পাবেন।

৫.ক্রাকেন

ক্র্যাকেন হল বিশ্বের সবচেয়ে বিশ্বস্ত ক্রিপ্টো ট্রেডিং প্ল্যাটফর্মগুলির মধ্যে অন্যতম। তাদের কাছে ট্রেড ও বিনিয়োগ করার জন্য কয়েন এবং টোকেনের বেশ ভালো কিছু নির্বাচন রয়েছে৷ মার্জিন ট্রেডিংয়েরও অনুমতি দেয় এরা। এক্ষেত্রে উল্লেখ্য, এই তালিকায় থাকা অন্যান্য কয়েকটি শীর্ষ প্ল্যাটফর্মের মতো এটিরও ব্যবহার প্রক্রিয়া বেশ জটিল।ফলত, প্রয়োজন অভিজ্ঞতার।

তবে, এই ক্র্যাকেনের বিশেষত্ব হলো DOGE সহ যাবতীয় নতুন, ঝুঁকিপূর্ণ ও জনপ্রিয় টোকেনে ট্রেড করতে পারবেন আপনি এই সাইট থেকে।

৬. eToro

eToro ইউকে এবং সমগ্র ইউরোপে বেশ খানিকটা পুরোনো হলেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বেশ নতুন। যুক্তরাষ্ট্রে সবে ব্যবসায়ীদের পরিষেবা দেওয়া শুরু করেছে তারা। eToro নিজেদের প্ল্যাটফর্মে ক্রয়-বিক্রয়ের জন্য বিপুল বৈচিত্র্যের ডিজিটাল সম্পদ অফার করে এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো এই অ্যাপে রয়েছে একটি অনুশীলন ট্রেডিং অ্যাকাউন্ট তৈরীর সুবিধা। যেখানে প্রকৃত অর্থ বিনিয়োগের আগে আপনি ক্রিপ্টোয় বিনিয়োগ অনুশীলন করতে পারবেন।

এই মুহূর্তে, eToro তে ১০০ ডলার জমা রাখলে বা লেনদেন করলে একটি $১০ বোনাস দেওয়া হচ্ছে।

৭. বিটকয়েন আইআরএ

বিটকয়েন আইআরএ আজকের লিস্টে থাকা অন্যান্য প্ল্যাটফর্মের থেকে বেশ খানিকটা আলাদা। অন্যান্য সাধারণ ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জ এবং ওয়ালেটগুলির বদলে এখানে আপনি মূলত কেবল মুদ্রা বিনিময় করে বিটকয়েন কামাতে পারবেন।

একই সঙ্গে উল্লেখ্য, ক্রিপ্টো ওয়ালেট এবং এক্সচেঞ্জের দুনিয়ার সর্ব সেরা ব্যবস্থাপনা একই সঙ্গে আপনি পাবেন বিটকয়েন আইআরএ তে। সেইসঙ্গে একাউন্ট ব্যবহার করে প্রাপ্য লাভগুলি হবে একেবারেই করমুক্ত ।

৮. ক্রিপ্টো.কম

বর্তমানে সবচেয়ে বৃহত্তম এবং দ্রুত বর্ধনশীল ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জগুলির মধ্যে একটি হলো ক্রিপ্টো.কম। হংকং ভিত্তিক সংস্থা হলেও আন্তর্জাতিক গ্রাহকদের জন্য যথেষ্ট ভালো কাস্টমার সার্ভিস দেয় এরা।

এই মুহূর্তে, বিশ্বব্যাপী ৯০ টিরও বেশি টোকেন ও কয়েন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে প্রায় ৫০ টি টোকেন ও কয়েন অ্যাক্সেস করতে পারবেন আপনি এই ক্রিপ্টো এক্সচেঞ্জে সাইট থেকে। ক্রিপ্টো.কম তাদের সেভিংস অ্যাকাউন্টেও বেশ বড় সুদ অফার করে। তবে, একটাই অসুবিধা হলো এটি সম্পূর্ন ভাবে মোবাইল অ্যাপ ভিত্তিক,কোন ডেস্কটপ প্ল্যাটফর্ম নেই এর।

৯.বিনান্স

কার্ডানো বা নিওর মতো কিছু মুদ্রায় বিনিয়োগের জন্য দুর্দান্ত প্ল্যাটফর্ম এটি। আজকের তালিকার শীর্ষস্থানীয় কয়েকটি প্ল্যাটফর্মের মতো এর ব্যবহার ততটা সহজ না হলেও শক্তিশালী ট্রেডিং প্ল্যাটফর্ম রয়েছে এটির। মোবাইলেও এদের অ্যাপ সহজেই ব্যাবহার করতে পারবেন আপনি।

১০. হডলনাট

আপনার মূল লক্ষ্য যদি হয় ক্রিপ্টোকারেন্সি ট্রেড করা তবে হডলনাট হতে পারে আপনার পছন্দের। এটি গ্রাহকের সঞ্চয় এবং ঋণদানের কথা মাথায় রেখে তৈরি এমন এক প্ল্যাটফর্ম যা বিটকয়েন সহ বেশ কয়েকটি স্টেবল কয়েনের উপর ফোকাস করে।এই মুহুর্তে, এই প্ল্যাটফর্মে সঞ্চয় এবং বিনিয়োগের মাধ্যমে আপনি বিটকয়েনে ৭.৪৬% এবং USDC-তে ১২.৭৩% পর্যন্ত লাভ করতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.