সিংহ নেই দেশে একটিও তবুও নাম সিঙ্গাপুর। সিঙ্গাপুরের অবাক করা কিছু তথ্য

নিউজ ডেস্ক- সিংহের দেশ বলা হয়ে থাকলেও দেশে একটিও সিংহ নেই। এশিয়া মহাদেশের দক্ষিণ পূর্বে অবস্থিত সিঙ্গাপুর রাষ্ট্রটির রাজধানীর নাম সিঙ্গাপুর। এর সরকারি নাম সিঙ্গাপুর প্রজাতন্ত্র। সিঙ্গাপুরের সরকারি ভাষা গুলি হল ইংরেজি মালয় ও সরল চিনা। সিঙ্গাপুরের স্থলভূমির মোট আয়তন ৬৯৯ বর্গকিলোমিটার। সিঙ্গাপুর এশিয়ার দেশ হলেও বিশ্বসভায় এটি ধনী দেশগুলোর তালিকায় উপরে অবস্থান করছে। 

সিঙ্গাপুর সম্পর্কে কিছু অদ্ভুত ও অজানা তথ্য হল-

1. সিঙ্গাপুর দেশকে বলা হয় দ্য লায়ন সিটি বা সিংহের শহর কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় হলো দেশটিতে একটাও সিংহ নেই। 

2. সিঙ্গাপুর দেশের 1000 ডলারের পেছনে দেশ টির জাতীয় সংগীত লেখা থাকে। এখানকার জাতীয় সংগীত ভাষায় লেখা, মাজুলা সিঙ্গাপুর’বা ‘সিঙ্গাপুর এগিয়ে চলো’।

3. এই দেশের নাগরিকরা বিশ্বের সব কথার শেষে না যোগ করে কথা বলে। আমরা যেমন থ্যাংক ইউ বলি তারা থ্যাংক ইউ লা বলে উচ্চারণ করে। 

4. অনেকেই সিঙ্গাপুর শহরটিকে ফাইন সিটি বা জরিমানার শহর বলে দেশটির ছোট ছোট জিনিসের জন্য জরিমানা দিতে হয়। এখানে রাত দশটার পর দুজনের বেশি লোক জমায়েত হওয়া নিষিদ্ধ এছাড়াও। পাঁচ বা তার বেশি লোক কোথাও জমা হলে আগে থেকে পুলিশের অনুমতি নিতে হবে। 

5. সিঙ্গাপুরে মানুষদের পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে দ্রুত হাঁটা মানুষ বলা হয়। তারা ঘন্টায় হাটে ৬.১৫ কিলোমিটার। সেখানে ভারতীয়দের হাঁটার গতি ঘণ্টায় গড়ে ঘণ্টায় ৫ কিলোমিটার।

6. বর্তমানে সবচেয়ে ধনী দেশ সিঙ্গাপুর একসময় ছেলেদের বসতি ছিল। এই ছোট্ট রাষ্ট্রটিতে 120 জেলে পরিবার বসবাস করত। কিন্তু বর্তমানে এটি বিশ্বের সবথেকে ব্যয় বহুল দেশ। এই দেশে থাকা খাওয়ার খরচ অন্যান্য উন্নত দেশের তুলনায় অনেক বেশি। 

7. এই দেশে সমকামিতা নিষিদ্ধ। তবে দেশটিতে জুয়া খেলা আইন সিদ্ধ। ২০১০ সালে পাবলিক টয়লেটে ২৮ বছরের যুবকের সঙ্গে ওরাল সেক্স করার অপরাধে ৩ হাজার ডলার জরিমানা হয় ৪০ বছরের এক পুরুষের। এছাড়াও সেক্সটয় অশ্লীল ম্যাগাজিন উপর সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। দেশটিতে পর্নোগ্রাফি ও সম্পূর্ণ অবৈধ। 

8. এখানকার প্রতিটি পার্কে নাইট সাফারি ব্যবস্থা রয়েছে। রাতের বেলায় চিড়িয়াখানা খোলা হয়। এখানকার প্রতিটি চিড়িয়াখানা রাত্রের বেলা ও খোলা থাকে এখানকার চিড়িয়াখানাগুলোতে কোনও খাঁচা নেই কোন পাখি বাক্সবন্দী থাকে না। 

9. কাউকে বিনা অনুমতিতে জড়িয়ে ধরা , ইন্টারনেটে গান বা সিনেমা ডাউনলোড করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। এছাড়াও দেশটিতে চুইংগাম খাওয়া নিষিদ্ধ। এখানকার মানুষেরা সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার মধ্যে তাদের রাতের খাবার সেরে ফেলেন। 

10. এখানে যদি কেউ অন্য একজন ব্যক্তি কে নগ্ন অবস্থায় দেখে ফেলে তাহলে সেই নগ্ন অবস্থায় থাকা ব্যক্তির উপর আইনত শাস্তির ব্যবস্থা রয়েছে। নিজের  ঘরের মধ্যে নগ্ন থাকলেও আইনত শাস্তি হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.