৩৪০০ হিন্দু পন্ডিত রয়েছে মাত্র। ১৯৯০ সালে কত হিন্দু পণ্ডিত ছিল কাশ্মীরে?

নিউজ ডেস্কঃ ১৯৯০ সালে ভারতবর্ষের কাশ্মীর উপত্যকায় যে কালোদিন নেমে এসেছিল তা আমাদের সবার জানা রয়েছে। ১,০০,০০০ হিন্দু কাশ্মীরি পন্ডিতদের তাদের নিজের ঘর ছেড়ে চলে যেতে হয়েছিল সেখানকার কিছু রাজনৈতিক আলগাঁওবাদী দলের কারণে। কিছু সূত্রের মতে সেই সময় কাশ্মীরে মোট পণ্ডিতদের সংখ্যাটা ছিল ৩ লক্ষ থেকে ৬ লক্ষ। নিজের দেশে নিজেরাই থাকছিলেন রিফিউজির মতো। তারপর সেই নরক থেকে সবাই দেশের কোনায় কোনায় কাজের সন্ধানে,পেট চালানোর উপায়ের খোঁজে পারি দেয়। কিন্তু সেসব তো অনেকদিন আগের কথা,একযুগেরও বেশি হয়ে গেছে তাহলে আজ কেন এই কথা উঠছে। প্রসঙ্গীত এই হিন্দু কাশ্মীরি পন্ডিতদের অনেকেই সেদিন নিজেদের ঘর ছাড়েননি, নিজের মাটি আঁকড়ে ধরে বাচাটাই তারা শ্রেয় বলে মনে করেন।

30 বছর শেষে আজ শুধু 3400 হিন্দু পন্ডিত আছেন অবশিষ্ট। কাশ্মীরের বারামুল্লায় এখনো অনেক হিন্দু পরিবার বসত করেন। 29 বছরের আগের স্মৃতি এখনো তাদের ছায়ার মত ধাওয়া করে। মাৎকারা জেলায় এখনো নানান হিন্দু উৎসব পালন করা হয়। শ্রীগুফারা জেলায় এখনো বাৎসরিক মা ভবানীর পূজা করা হয় এবং সেই কেন্দ্রিক একটি মেলাও বসে।

2008 সালে প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং কাশ্মীরি পন্ডিতদের জন্য 1614 টাকার একটি মাসিক ভাতা ঘোষণা করেন। এছাড়াও সরকার 3000 সরকারি কর্মী হিসেবে যোগদানের জন্য যোগ্য কাশ্মীরি হিন্দু পন্ডিত যুবকদের আহবান জানান।

source: wikepedia

Leave a Reply

Your email address will not be published.