ব্রণ দূর করতে সাহায্য করে। সজনে পাতার অসাধারন ৬ টি কাজ

সজনে আমাদের সকলেরই এক অত্যন্ত পরিচিত সবজি। সজনে ডাটা ও শাক তো আমরা প্রায় সকলেই খেয়েছি।তবে এই সজনে পাতা যে কেবল খাদ্য হিসাবে ব্যাবহৃত হয় তা কিন্তু নয়‌।ত্বকের যত্নেও ব্যবহৃত হয় সজনে পাতা

আসুন জেনে নেওয়া যাক ত্বকের যত্নে কিভাবে ব্যবহার করা যেতে পারে সজনে পাতা

১)বলিরেখা দূর করতে

গোটা শরীরের মধ্যে আমাদের মুখের ওপরেই বয়স থাবা বসায় সব থেকে প্রথমে।এর ফলে গোটা মুখে দেখা যায় বলিরেখা। এই বলিরেখা দূর করে ত্বকের বার্ধক্য রোধ করতে চাইলে ব্যবহার শুরু করুন সজনে পাতার ।

আপনার পছন্দমত যেকোনো ফেসপ্যাক ব্যাবহার করার সময় ফেসপ্যাক এর সাথে তাতে কিছুটা সজনে তেল বা সজনে পাতার গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এরপর এপ্লাই করুন ত্বকে।নিয়মিত ব্যবহারে দেখবেন ত্বকের বলিরেখা হালকা হয় এসেছে অনেকটাই সেইসাথে আবার ফিরে এসে ত্বকের উজ্জ্বলতা ।

২)ঠোঁট ফাটা রোধ করতে

শীতকালে আদ্রতার অভাবে ঠোঁট সকলেরই ফাটে কিন্তু অনেকের আবার বারোমাস ই সহ্য করতে হয় এই সমস্যা।মূলত ত্বকের শুষ্কতার জন্যই দেখা যায় এই সমস্যা ।ঠোঁট ফাটার সমস্যা থেকে চিরকালীন মুক্তি পেতে ব্যবহার শুরু করুন সজনে তেল ।এটা ঠোঁটের আদ্রতা যেমন বজায় রাখবে তেমনি ঠোঁটকে রাখবে গোলাপি ও নরম ।

৩)ত্বকের রং উজ্জ্বল করতে

 বলিরেখা, ব্রণের দাগ, ট্যান প্রভৃতির ফলে আমাদের ত্বক তার স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা হারিয়ে ফেলে এবং ক্রমশ হয়ে যায় কালো ।ত্বকের লাবণ্য পুনরায় ফিরিয়ে আনতে নিয়মিত ব্যবহার শুরু করুন সজনে পাতার তেল এর ।নিয়মিত ব্যবহারে ত্বক এর যেকোনো দাগ সবথেকে পুরোপুরিভাবে মুক্তি পাবেন আপনি। 

৪) ব্রণ দূর করতে

মূলত অয়েলি স্কিনের সমস্যা হলেও সব ধরনের ত্বকেই ব্রণের সমস্যা দেখা যায় ।জাঙ্ক ফুড খাওয়া ত্বকের ঠিকমতো যত্ন না নেওয়া প্রভৃতি থেকেও দেখা দিতে পারে ব্রন ।ত্বকে অতিরিক্ত তেল ধুলো-ময়লা ও ব্যাকটেরিয়া থেকে মূলত এই সমস্যার সৃষ্টি হয় ।ত্বক থেকে ব্রণ দূর করতে চাইলে ব্যবহার করে দেখতে পারেন সজনে পাতার তেল ।এতে থাকা অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান গুলি ব্রণ সৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া বিনাশ করে ব্রণের হাত থেকে ত্বককে মুক্তি দেবে ।তবে এক্ষেত্রে মনে রাখা দরকার সব ধরনের ত্বকে সজনে শুট করে না ।তাই গোটা মুখে এটি ব্যবহার করার আগে এলার্জি আছে কিনা একবার টেস্ট করে নেওয়া উচিত ।

৫)সুস্থ,পরিষ্কার ত্বক পেতে

সুস্থ উজ্জ্বল পরিষ্কার ত্বক পেতে শুধু ত্বকের যত্নই যথেষ্ট নয় বরং শরীরের সুস্থতাও প্রয়োজনীয়।রক্ত পরিশ্রুত হলে ত্বকের সমস্যা অনেকটাই কমে যায় আমাদের । আর এক্ষেত্রে শরীরকে ভেতর থেকে সুস্থ রেখে ত্বকের সমস্যার সমাধান করতে চাইলে সজনের মত উপকারী জিনিস আর হয় না ।প্রতিদিন সজনে গুঁড়ো গ্রহণ করলে তা শুধুমাত্র রক্তকে পরিশ্রুত করবে তাই নয় সেই সাথে আপনাকে দেবে পরিষ্কার ও স্বাস্থ্যকর ত্বক ।

৬)ত্বকের রোমকুপের ছিদ্র কমাতে

বয়সের সাথে সাথে আমাদের মুখের ত্বকের লোমকূপের ছিদ্র ক্রমশ বড় হয়ে যায়। এর ফলে এতে ধুলো-ময়লা বেশি পরিমাণে জমা হতে থাকে যা থেকে অনেক সময় দেখা যায় নানা রকমের সমস্যা ।মূলত ত্বকে প্রয়োজনীয় কলজেনের  অভাবে এটি ঘটে ।এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে নিয়মিত সজনে তেল ত্বকে ব্যবহার করা উচিত। এটি নিয়মিত ব্যবহার করলে লোমকূপের ছিদ্র ধীরে ধীরে ছোট হয়ে আসবে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.