চীনের ১ কোটি মানুষের হত্যাকারী চেঙ্গিস খাঁ এর কতজন স্ত্রী ছিল?

নিউজ ডেস্কঃ মঙ্গোলিয়ার যোদ্ধা চেঙ্গিস খান বা তেমুচিন জন্মগ্রহণ করেন মঙ্গোলিয়ার বৈকাল নদীর কাছে,18 আগস্ট 1162 সালেতে। তিনিই এমন প্রথম যোদ্ধা বা শাসক যে নিজের আশেপাশের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সম্প্রদায়কে জড়ো করে মঙ্গোলিয়া বাহিনী গড়ে তোলেন। এরকম ভাবে সবাইকে একসাথে নিয়ে চলাই হয় তো এক আসল শাসকের পরিচয় কিন্তু যখন নিজের বাবাকে সেই সম্প্রদায়ের কেউ হত্যা করে তখন তা কঠিন হয়ে ওঠে।

ইতিহাসে চেঙ্গিস খানকে এক মহান যোদ্ধা ও শাসক হিসাবে জানে,কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো মঙ্গোলিয়া জাতির মানুষ বা গবেষক চেঙ্গিস খান সম্পর্কে কিছু বলতে নারাজ। মনে করা হয় যখন চেঙ্গিস খান চীন ও ইরান হামলা করেছিল তখন প্রায় 4 কোটি মানুষের মৃত্যু হয়।

চেঙ্গিস খান ছিলেন একজন অসম্ভব বুদ্ধিসম্পন্ন নেতা,যে সমস্ত জাতি প্রজাতিরা নিজেদের মধ্যে লুটপাট হিংসা চালাতো তাদের সবাইকে একজায়গায় এনে তিনি বয়সের সবচেয়ে বড় সেনা তৈরি করেন তখনকার দিনে।

1240 খ্রিস্টাব্দতে রচিত ‘সিক্রেট হিস্ট্রি অফ মঙ্গলস’ বইটি থেকে মঙ্গলদের রাজ্য রাজনীতির সম্পর্কে জানা যায়। কিন্ত কোনো মঙ্গোলিয়া এই বিষয়ে মুখ খুলতে নারাজ।একজন আরবি গবেষক জানান যে খানের ব্যাপারে তথ্য জোগাড় করাটা ছিল দুষ্কর কাজ।

যে সমস্ত দেশ চেঙ্গিস খান যেতেন ও জয় করতেন সেখানকার মহিলাদের ধর্ষণ ও নারকীয় অত্যাচার করা হতো। বিশ্বের প্রায় .5 শতাংশ মানুষের ভিতরে চেঙ্গিস খানের জিন বর্তমান।

চেঙ্গিস খানের 500’র অধিক স্ত্রী ছিল,মঙ্গোলিয়ানদের তিনি সুযোগমতো তাদের ব্যাবহার করতেন রাজনৈতিক সম্প্রীতি রক্ষার খাতিরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.