পর্ণ দেখা দণ্ডনীয় অপরাধ পৃথিবীর কোন দেশে?

নিউজ ডেস্কঃ উত্তর কোরিয়া। নামটা শুনলেই সবার আগে মাথায় আসে কিম জং উং এর কথা। এই দেশটি বর্তমানে বিশেষ ভাবে চর্চিত হয় এখানকার রাজনৈতিক কারন সহ একাধিক আজব নিয়মের জন্য।

১) উত্তর কোরিয়া এমন একটি দেশ যেখানে ৫ বছর অন্তর ভোট তো হয় কিন্তু সেখানে একজনই প্রার্থী তিনি হলেন কিম জং উন আর অন্য কোনো বিরুদ্ধি পক্ষ নেই। ওখানকার মানুষের কাছে শুধুমাত্র নির্বাচন করার একটায় অপশান থাকে তাও  সবাইকে ভোট দিতেই হয়।

২) উত্তর কোরিয়ায় ছেলে এবং মেয়েদের জন্য ২৮ টি চুলের স্টাইল আছে এবং তাদের ওই স্টাইলের মধ্যে থেকেই বেছে নিতে হয় তাদেরকে।তবে যদি করোর ওই স্টাইল পছন্দ না হয় তাহলে আপনার তাদের কাছে একটা অপশান থাকে সেটি হল টাক হয়ে যাওয়া।তবে এই নিয়ম শুধুমাত্র প্রযোজ্য নয় ওখানকার শাসক কিম জং উন। তিনি নিজের ইচ্ছে মতো চুলের স্টাইল করতে পারেন।তবে কিম জং উন মতো করে চুলের স্টাইল করলে সেই ব্যাক্তিকে মৃত্যুবরন করতে হয়।

৩) আমাদের এখানে যেমন টিভির চ্যালেন অনেকগুলি আছে কিন্তু উত্তর কোরিয়াতে মাত্র ৩ টি টিভির চ্যালেন আছে আর উত্তর কোরিয়ার রাজধানিতে আছে ৪ টি টিভির চ্যানেল। তবে এই নিয়ে যদি কোনো গবেষণা বা বিশ্লেষণ করা হয় তাহলে সেই ব্যাক্তির জেল যেতে হবে অথবা তাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হবে।

৪) এই দেশটির ক্যালেন্ডার পৃথিবীর অন্য সব দেশের ক্যালেন্ডারের থেকে একদম অলাদা। বর্তমানে যেখানে পৃথিবীর সব দেশে ২০ শতাব্দি চলছে সেখানে দাড়িয়ে উত্তর কোরিয়াতে এখন ১০৫ সাল চলছে। আর এই ক্যালেন্ডার আলাদার রীতি শুরু হয়  ১৯১২ সালে KIM IL SUNG জন্মের সাথে সাথে।

৫)এখানকার স্কুলে বাচ্চাদের ইতিহাস তো পড়ানো হয়। তবে সেই ইতিহাসের বিষয়বস্তু হল শুধুমাত্র কিম জন উন এবং কিম ইল সুং এর বীরত্বের কথা আর অন্য কিছুই নয়।

৬) এখানে পড়াশুনো শেখা খুবই ব্যয়বহুল যার হলে সবাই পড়াশুনো করতে পারে না। কারন ওখানকার স্কুলে পড়ার খরচ তো দিতে হয় তার সাথে এই স্কুলের চেয়ার, টেবিলেরও খরচ দিতে হয়। তাই যারা ধনী ব্যাক্তি তারাই তাদের ছেলে মেয়েদের পরাতে সক্ষম হয়।

৭) উত্তর কোরিয়াতে সবচেয়ে বড়ো ২ টো অপরাধ হল বাইবেল পড়া ও পর্ণ দেখা। তাই যদি কোন ব্যাক্তি এই দুটো কাজ করতে গিয়ে ধরা পরে তাহলে তাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়।

৮)এখানে ইন্টারন্যাশনাল কল করা যায় না অর্থাৎ এখানেকার মানুষ বাইরের দেশের কোনো মানুষের সাথে কথা বলতে পারে না।আর যদি কেউ কথা বলে তাহলে তাকে মৃত্যুবরন করতে হয়।

৯)উত্তর কোরিয়াতে  ঘুরতে যাওয়া মানুষদেরকে একটিই হোটেলে রাখা হয়।এবং এই মানুষরা যদি বাইরে বের হতে হলে তাদের সাথে করে একটি গাইডকে সব সময় নিয়ে যেতে হয়।

১০)এখানে জিন্সের প্যান্ট পড়া নিষিদ্ধ।তাই জিন্স প্যান্ট পড়ে ঘুরলে পা ভেঙে ফেলা হবে। ১১) উত্তর কোরিয়ার জাতীয় ভাষা হল কোরীয় ভাষা ।তবে এখানে ব্যবহৃত সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিদেশী ভাষা হিসাবে অবস্থান করে সম্ভবত চীনা ভাষা। উত্তর কোরিয়ার রাজধানি পিয়ং ইয়ং।

Leave a Reply

Your email address will not be published.