জলদস্যুদের স্বর্গরাজ্য কোন দেশ জানেন?

নিউজ ডেস্ক: সমকামিতাকে খুন করার থেকেও ভয়ঙ্কর অপরাধ বলে মনে করা হয়। সোমালিয়া আফ্রিকা মহাদেশের উত্তর পূর্বে অবস্থিত একটি দেশ । সোমালিয়ার রাজধানী ও বৃহত্তম শহর হল মোগাদিশু।সোমালিয়ার পশ্চিমে আছে ইথিওপিয়া, উত্তরপশ্চিম দিকে জিবূতী, উত্তরে আদন উপসাগর, পূবদিকে ভারত মহাসাগর এবং দক্ষিণপশ্চিমে কেনিয়া।

সোমালিয়া দেশের সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য

1. সোমালিয়া দেশের মানুষের বসবাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায় প্রস্তর যুগ থেকেই। মানুষ যখন পাথর দিয়ে শিকার করা শিখিয়ে সেই সময় থেকে সোমালিয়ায় জনবসতি গড়ে ওঠে। 

2. বর্তমানে পুরো বিশ্ব আধুনিক সভ্যতার সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে চলছে। কিন্তু বর্তমানে দাঁড়িয়ে সোমালিয়া দেশে এখনও চলে আসছে পুরনো কিছু রীতিনীতি। এখানে মেয়েদের মুসলমানি করানো হয়। যাতে তাদের মধ্যে যৌন উত্তেজনা কম থাকে। এবং তারা যাতে কোনো অবৈধ যৌন কর্মে লিপ্ত না হতে পারে। 

3. সোমালিয়া আফ্রিকা মহাদেশের উত্তর-পূর্বে পাহাড়ে অবস্থিত একটি রাষ্ট্র। এই দেশটিকে জলদস্যুতার স্বর্গরাজ্য ও বলা হয়। 

4. দেশটির শিক্ষাব্যবস্থা অনেক অনুন্নত এখানে প্রায় ১০০ জনের মধ্যে মাত্র একজন পড়াশোনার সুযোগ পায়। শিক্ষার অবস্থা এমন হওয়াই দেশটি পুরো কুসংস্কার এ ভরে আছে। 

5. সোমালিয়া দেশে সমকামিতা খুন করার থেকেও ভয়ঙ্কর অপরাধ বলে মনে করা হয়।  কারো বিরুদ্ধে সমকামিতা প্রমাণ হলে তাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়

6. সোমালিয়া দেখেতে কোন ছেলের বিরুদ্ধে কোনো একটি মেয়েকে জ্বালাতন করার অভিযোগ উঠল এবং তার প্রমাণ হলে তাকে সর্বনিম্ন পাঁচ এবং সর্বোচ্চ 10 বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

7. একসময় সোমালিয়া আফ্রিকা মহাদেশের একটি উন্নত দেশ হলেও বর্তমানে  একটি দরিদ্র দেশে পরিণত হয়েছে। এখানকার চিকিৎসা ব্যবস্থা ও অনেক উন্নত। শুধুমাত্র জাতিসংঘ সহায়তায় এখানে কিছু সরকারি হসপিটাল রয়েছে। 

8. এই দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা ভীষনই খারাপ। এখানে পাকা রাস্তা নেই বললেই চলে। তবে জাতিসংঘের সহায়তা  ক’টি হাইওয়ে করা হয়েছে। 

9. দেশটিতে বাসের ভাড়া তুলনামূলকভাবে বেশি হওয়ায় এখানকার বেশিরভাগ মানুষ ট্রাকে করে যাতায়াত করেন। 

10. সোমালিয়া একটি দরিদ্র দেশ হওয়ায় এখানে খাবারের সংকট দেখা যায়। এখানে কেউ বেশি পরিমাণে খাবার মজুদ করে রাখে না কারণ এখানে চুরি প্রচুর পরিমাণে হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.