জাদুর পাখি বলা হয় কোন পাখীকে?

নিউজ ডেস্কঃ পৃথিবীতে এক এক সময় এক এক ধরনের প্রানির আবির্ভাব দেখা হত।তাদের মধ্যে কিছু কিছু প্রাণী ভয়ানক আবার কিছু কিছু প্রাণী সাধারন।যাদের কথা আমরা বই থেকে জানতে পারি।তাই এমন ৪ টি ভয়ানক এবং পুরানো প্রাণী সম্পর্কে বলা হল যাদের অস্তিত্ব পৃথিবীতে দেখা গিয়েছিল।

১) কেল্পিঃ এই প্রাণীটি মাছ ও ঘোড়ার সংমিশ্রণ।যার অর্ধেকটা মাছ ও বাকি অর্ধেকটা ঘোড়ার মতো।এই প্রাণীটি মানুষ আকর্ষণ করার ক্ষমতা ছিল বিশেষ করে বাচ্চাদের।আকর্ষিত মানুষদের নিজের পিঠে করে মাঝ সমুদ্রে নিয়ে গিয়ে তাদেরকে খেয়ে ফেলত।আবার কিছু কিছু কেল্পি ভালোও ছিল যারা মানুষের কোনোরকম ক্ষতি করতো না।এই প্রাণীটির কথা জানা যায় গ্রিক ও রোমান সভ্যতার বই থেকে।

২) পিক্সিসঃ এই প্রাণীটি মানুষের জন্য ক্ষতিকারক না হলেও মানুষকে উত্তেজিত করতে সক্ষম।এদের আকৃতি মানুষের হাতের সমান হয়ে থাকে।তবে এরা ইচ্ছে করলে এদের আকৃতি বাড়াতে পারে।এদের কথা প্রথম জানা যায় ইংল্যান্ডের।

৩)ক্যাথুডুঃ এটি সমদ্রের একটি ভয়ানক দানব।এদের মাথা ছিল অক্টোপাসের মতো ও শরীর ছিল মানুষের মতো।আবার কিছু কিছু ক্যাথুডুর পাখাও দেখা গিয়েছে।এরা সমদ্রে যাত্রারত মানুষদের শিকার বানাত।এই প্রাণীটিকে ১৯৯০ সালের পরে আর দেখা যায় নি।

৪)ফেনিক্স বার্ডঃ চাইনিস এবং জাপানের লোককথায় ফিনিক্সকে জাদুর পাখি বলা হত। যার চোখের জলে বেচে উঠত মৃত মানুষেরাও।এই পাখিটই শুধু তার সাথে দেখা দেয় যেকিনা কোনো সমস্যায় আছে বা যাদের মন খুব ভালো।এই পাখিটিকে হ্যারি পটার সিনেমাতে দেখা গিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.