গর্ভবতীদের জন্য উপকারি। স্ট্রবেরির অসধারন ৬টি উপকারিতা

নিউজ ডেস্কঃ স্ট্রবেরী। সচরাচর পাওয়া যায়না। যদিও এই ফলের বিশেষ উপকার থাকা সত্ত্বেও অনেকেরই মন পছন্দ নয়। তবে এই ফলের বিশেষ গন্ধের জন্য বিশেষভাবে বিখ্যাত।

ডায়াবেটিস ও কোষ্ঠকাঠিন্যর সমস্যা দূর করেঃ স্ট্রবেরীতে আছে প্রচুর পরিমানে ফাইবার যা ডায়াবেটিস ও কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সহায়তা করে।ফাইবার রক্তে চিনির পরিমান নিয়ন্ত্রণ করে এবং ডায়াবেটিসের মাত্রা নিয়ন্ত্রন করে।

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়ঃ অন্য সব ফল ও সবজির মতো স্ট্রবেরীতেও আছে প্রচুর পরিমানে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করে।এছাড়াও স্ট্রবেরীতে আছে লুটেইন ও জিয়াথানাসিন যা ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি হ্রাস করে।এতে উপস্থিত ভিটামিন সি শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়।

ত্বকের জন্য ভালোঃ স্ট্রবেরীতে উপস্থিত ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বককে বিভিন্ন ক্ষতিকারক উপাদান থেকে রক্ষা করে।এছাড়াও নিয়মিত স্ট্রবেরী খেলে ত্বকে সহজে বার্ধক্যের ছাপ পরে না।

ওজন কমাতে সহায়কঃ স্ট্রবেরী ওজন কমাতে সহায়ক।স্টেবেরীতে ক্যালোরির পরিমানে খুবই কম।এক কাপ স্ট্রবেরীতে আছে মাত্র ৫৩ ক্যালোরি।স্ট্রবেরি খেলে বেশ অনেকক্ষন পেট ভরা থাকে।তাই স্ট্রবেরী ওজন কমানোর জন্য একটি উপযোগী খাবার।

গর্ভবতীদের জন্য উপকারিঃ গর্ভবতী নারীদের জন্য স্ট্রবেরী খুবই উপকারি।স্ট্রবেরী গর্ভের শিশুর মস্তিষ্ক গঠনে সহায়তা করে এবং মা ও শিশুকে পুষ্টি সরবরাহ করে।তাই গর্ভবতী মায়েদের খাবার তালিকায় স্ট্রবেরী হতে পারে একটি আদর্শ খাবার।

হাড়ের জন্য ভালোঃ স্টবেরীতে আছে ম্যাঙ্গানিজ, পটাশিয়াম ও কিছু মিনারেল যা হাড়ের স্বাভাবিক বৃদ্ধি বজায় রাখে।এছাড়াও এই উপাদান গুলো হাড়কে রাখে মজবুত ও সুস্থ।তাই বাড়ন্ত শিশুদের জন্য স্ট্রবেরী একটি উপকারি খাবার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.