নিজে জুতো পরার আগে কেন অন্য একজনকে দিয়ে জুতা পরাতেন রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ?

নিউজ ডেস্ক – রাজ রাজা মানেই এক বিলাসবহুল ব্যাপার। একদিকে যেমন রয়েল ফ্যামিলি গুলিতে প্রতিপত্তি কম থাকে না সেরকমই অন্যদিকে রাজকীয় বংশ গুলিতে থাকে একাধিক   লুকানো অতীত। অজানা অনেক রহস্য চাপা পড়ে যায় রাজমহলের তলায়। ‌ এরকমই রাজবংশ পরিবারের রানী হলেন দ্বিতীয় এলিজাবেথ। নিত্যপ্রয়োজনীয় পোশাকের সঙ্গে  তার সাদৃশ্য বজায় রেখে অর্থাৎ ম্যাচিং করে প্রসাধনী ও অলংকার ব্যবহার করতেন রানী। কিন্তু এক বিশেষ ক্ষেত্রে আশ্চর্যকর তথ্য উঠেছিল সকলের মধ্যে। 

২০১৭ সাল থেকে দীর্ঘ ১১ বছর ধরে রানির ওয়াড্রোব সামলে আসছেন স্টুয়ার্ট পারভিন ইভনিং স্ট্যান্ডার্ড-কে দেওয়া সাক্ষাতকারে জানিয়েছিলেন, রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের বিশ্বস্ত সঙ্গী ছিলেন অ্যাঞ্জেলা। তাই কোন রকম নতুন জুতো পরার আগে অ্যাঞ্জেলা পড়ে সেটি পরীক্ষা করে নিতেন। যদি জুতোটি পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর আরামদায়ক বলে মনে হয় তখনই এই জুতা পরিধান করতেন তিনি। নতুবা পীড়াদায়ক কোন জিনিসই ব্যবহার করা পছন্দ করতেন না দ্বিতীয় এলিজাবেথ। 

খুবই আশ্চর্যজনক ব্যাপার ছিল রানী ও তার বিশ্বস্ত সঙ্গী অ্যাঞ্জেলার পায়ের মাপ ছিল হুবহু এক।রানির নতুন জুতো পরে একজন আগে বাকিংহাম প্রাসাদে হেঁটে বেড়ান। কারণ রানিমা যেন কখনওই এমন না অনুভব করেন যে, তিনি অস্বস্তি বোধ করছেন এবং তিনি আর হাঁটতে পারছেন না। তাই তাঁর অধিকার আছে যে তাঁর জুতো পরার আগে অন্য কেউ প্রথমে তাঁর জুতো পরে দেখবেন, তারপর রানি সেই জুতো পরবেন। বিষয়টি শুনতে অদ্ভুত লাগলেও এটাই বাস্তব। কিছুদিন আগেই রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ এর মৃত্যু হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.