রক্তচাপ ও হৃদরোগ কম করে। পালংশাককে সুপার ফুড কেন বলে? জেনেনিন এর অসাধারন কিছু উপকারিতা

ওয়েব ডেস্কঃ পালং শাক একটি শীতকালীন সবজী।পালং শাকে অজস্র গুনাবলি থাকার জন্য একে সুপার ফুড বলে।

১০০ গ্রাম পালং শাকে থাকে ৯১% জল, ৩.৬% শর্করা, ২৩ ক্যালরি শক্তি, ০.৪% প্রাকৃতিক শর্করা, ২.২% ফাইবার, .০.৪% ফ্যাট, ০.১৪% ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড, ০.০৩% ওমেগা ৬ ফ্যাটি অ্যাসিড, ০% ট্রান্স ফ্যাট থাকে।

পালং শাকে থাকে প্রচুর অদ্রবণীয় ফাইবার থাকার কারনে ইহা পরিপাকতন্ত্রের জন্য খুবই উপকারী।এবং কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।

রক্তে শর্করার মাত্রা কমায়।

পালং শাকে লুটেইন ও জিয়াজ্যান্থাইন থাকায় চোখের পক্ষে খুব উপকারী।

পালং শাকে যে ক্যাম্পফেরল থাকে তা ক্যান্সার সহ দুরারোগ্য ব্যাধির হাত থেকে দেহকে সুরক্ষা প্রদান করে।

পালং শাকে নাইট্রেটস থাকায় রক্তচাপ ও হৃদরোগ কম করে।

বিপাক ক্রিয়ার কারনে শরীরে ফ্রি র‍্যাডিক্যাল তৈরি হয়। আর পালং শাক এই ফ্রি র‍্যাডিক্যালের মাত্রা কমিয়ে দেয়।

পালং শাকে ভিটামিন-B,C,E, পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, আয়রন, ম্যাগনেসিয়াম, ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড থাকার কারনে ইহা চুলের বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

পালং শাকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকায় ত্বকের নিচে কোলাজেন উৎপাদন বাড়িয়ে দেয়। ফলে বলিরেখার দাগ কমে ও ত্বকে মসৃণ করে। ভিটামিন এ ত্বকের আদ্র রাখে।

ক্যালরি ও ফ্যাট কম থাকার কারনে পালং শাক ফ্যাট কমাতে সাহায্য করে।

পালং শাকে জিঙ্ক ও ম্যাগনেসিয়াম থাকে। ফলে ঘুম ভালো হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.