কোন দেশে থাকে পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দরী ট্রাক ড্রাইভার?

নিউজ ডেস্ক –  প্রাচীন যুগ থেকেই গোটা পৃথিবীতে আধিপত্য বিস্তার করা রয়েছে পুরুষরা। যে কোনো কঠিন কাজ করতে হলে প্রথম সারিতে নাম থাকে সকল পুরুষ জাতির। কিন্তু সেই একঘেয়ামি চিন্তা ধারার  শিকল ভেঙে  বর্তমানে অসাধ্য সাধন করেছে বহু মেয়েরা। তবে মেয়েরা যেমন একদিকে রাজনীতি করছে ঠিক সেরকমই প্লেন উড়ানো থেকে শুরু করে ট্রেন চালানো পর্যন্ত সব কাজই করে থাকেন নারীরা। কিন্তু ট্রাক চালানো আমার মেয়েদের কাছে নাকি!  এমন প্রশ্ন উঠেছে বহু মানুষের মনে। অনেকেই বিষয়টিকে নিয়ে হাসির খোরাকও বানিয়েছেন।  তবে জাপানে এমন একজন সুন্দরী মহিলা রয়েছেন  যিনি ট্রাক চালিয়ে গোটা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। 

জাপানের সুন্দরী রমণীর নাম হল রাইনো সাসাকি। তবে ছোট থেকেই ট্রাকচালানোর  ইচ্ছা ছিলনা রাইনোর। এর পেছনে রয়েছে কিছু গল্প। আসলে ডাইন ওর বাবাও একজন ট্রাক ড্রাইভার। মূলত সেই কাজ করে সংসার চালাতেন তার পিতা। কিন্তু রাইনোর যখন ৭ বছর বয়স তখন তার বাবা শারীরিক দিক থেকে অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাই একটি মাত্র মেয়ে হওয়ার দরুন বাবাকে না ছেড়ে দেওয়ার জন্যই নিজের শখের নাচ বিসর্জন দিয়ে বাবার সঙ্গে ট্রাকের সফরসঙ্গী হতেন তিনি। বাবা আর মেয়ে মিলে মাইলের পর মাইল পাড়ি দিত। 

পরবর্তীতে যখন তিনি একটু বড় হলেন তখন বাবাকে সম্পূর্ণ বসিয়ে ট্রাকের দায়িত্ব নিজেই সামলালেন। রাইনোর কথায়, ” আমার এই ঘটনায় কোনরকম আক্ষেপ হয় না। বরং বাবার সঙ্গে সময় কাটাতে পারি এটাই সবচেয়ে বড় ব্যাপার। পাশাপাশি জাপানের সবচেয়ে সুন্দরী ট্রাক ড্রাইভার বলে বহু মানুষ। দিছে আর বাদবাকি নারীদের উদ্বুদ্ধ করতে আমার কাজ প্রতিনিয়ত সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হয়। আর বাদবাকি মেয়েরা নিজেদের মনোবল ফিরে পায়। আমার এই কাজে সবচেয়ে বড় অসুবিধা হলো আমার মাপের গ্লাভস, সেফটি সু, পোশাক পাইনা ট্রাক চালানোর জন্য। ভবিষ্যতে মেয়ে ট্রাক ড্রাইভার এর জন্য নতুন পোশাক তৈরি করতে চাই। ট্রাককে নিজের পেশা করে কাজ করছি প্রায় ৭ বছর”। 

উল্লেখ্য,  রাইনো প্রতিবছর প্রায় দুই লাখ  কিলোমিটার এমন ট্রাক ড্রাইভিং করে। জাপানের বিভিন্ন এলাকায় ট্রাকে করে ফল ও সবজির সরবরাহ করে থাকেন। তবে শুধুমাত্র বাজার করা নয় যাকে কোনো বড় বড় সমস্যা হলেও নিজের হাতে সেটি সারিয়ে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে রাইনো। পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়ার ফেসবুক কিংবা ইনস্টাগ্রামে এতটাই ফলোয়ার্স রয়েছে যা কোনো তারকার থেকে কম নয়। মূলত সোশ্যাল মিডিয়াতে তাকে জাপানের সুন্দরী ট্রাক ড্রাইভার নামেই ডাকা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.