প্রতিদিন তিনটি আপেল খেলে ওজন নিয়ন্ত্রনে থাকে। আপেলের অজানা কিছু উপকারিতা

এ এন নিউজ ডেস্কঃ “অ্যান অ্যাপেল আ ডে কীপস অ্যাওয়ে ফ্রম দ্য ডক্টর” ইংরেজির এই প্রবাদটি বেশ পরিচিত। অর্থাৎ একটি আপেল আপনাকে ডাক্তারের থেকে দূরে রাখবে। অর্থাৎ বুঝতেই পারছেন যে আপেলে এমন কিছু আছে যা খেলে যেকোনো বড় ধরনের রোগ আপনাকে ছুঁতে পারবেনা। বহু বছর ধরেই মানুশে একথা জানে। কিছু মানুষ এই কথা মেনে চললেও কিছু মানুষ এখনও এই নিয়ম মানেন না, যদিও অনেকেই আপেলের গুনাগুন সম্পর্কে এখনও অবগত নন। আপেল খেলে পেট ভরে এবং এর চোখ ধাঁধানো রং এর কারনে ছোটরা বেশ পছন্দ করে ফলে যেকোনো বয়েসের মানুষের কাছে এই ফল ভীষণ পরিমানে গ্রহনযোগ্য।

আপেল ক্যান্সার প্রতিরোধক, আপেল খেলে ব্রেস্ট ক্যান্সার হয়না, কারন আপেলের মধ্যে থাকা পেকটিন শরীরকে কোলোন ক্যান্সারের থেকে দূরে রাখে, ফুস্ফুস এবং লিভারের ক্যান্সারের জন্য বিশেষ উপকারী এই ফল।

আপেলের মধ্যে থাকা ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট হার্টের স্বাস্থের জন্য ভীষণ কার্যকারী।

প্রতিদিন তিনটি আপেল খেলে ওজন নিয়ন্ত্রনে থাকে।

আপেলের রস দাঁতের ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়াকে ধ্বংস করে, ফলে দাঁত ভালো থাকে।

প্রতিদিন আপেল খেলে ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর হয়ে যায়।

আপেল খেলে হজম শক্তি বারে। কারন হজমে সাহায্যকারী ব্যাকটেরিয়া তৈরি করে আপেল।

আপেলের মধ্যে আছে পর্যাপ্ত পরিমানে বোরন। যা হাড়কে শক্ত রাখতে সাহায্য করে।

প্রতিদিন নিয়ম করে আপেল খেলে বার্ধক্যজনিত আলঝাইমার্স রোগ প্রতিরোধ করা সম্ভব।

আপেলে প্রচুর জল থাকার ফলে শরীরে জলের চাহিদা মেটায়।

আপেলের মধ্যে থাকা পেকটিন শরীরে ইনসুলিনের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। যার ফলে ডায়াবেটিস দূরে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.