সর্দি কাশি হয়েছে! তুলসী পাতা থেকে শুরু করে গোলমরিচ। যে জিনিস গুলি খাওয়া উচিৎ

নিউজ ডেস্কঃ ঠাণ্ডা লেগে গলা ধরা সর্দি কাশিতে আরাম দেয় পুদিনা সেদ্ধ জল।এক কাপ জলে দু-পাঁচটা পুদিনা পাতা ফুটিয়ে দিন।জল ফুটে অর্ধের হলে এক চামচ মধু গুলে ঈষ্ণদুষ্ণ খান।

রোজ সকালে কটি তুলসি পাতা আর আস্ত গোলমরিচ চিবিয়ে খেলে সহজে ঠাণ্ডা লাগে না।

কাশিতে কষ্ট পেলে রাতে শোয়ার সময় নাভিতে অল্প সরষের তেল দিয়ে ছোটো এক টুকরো ন্যাকড়া ভিজিয়ে চার ভাঁজ করে নাভির উপর দিলে কাশি অনেকটা প্রশমিত হয়।

সর্দি কাশি হলে গরম দুধে হলুদ গুঁড়ো মিশিয়ে খেলে সর্দি কাশির উপশম হয়।

খুসখুসে কাশি হলে জিভের তলায় এক চিমটে লবন দিয়ে কিছুক্ষণ শুয়ে থাকুন কাশি একদম কমে যাবে।

বৃষ্টিতে ভিজে সর্দি হতে পারে।তার আগে আদা তেজপাতা দিয়ে চা পান করুন। তুলসি পাতার রস মধু দিয়ে বাচ্চাদের খাওয়ালে সর্দি কাশির ঘড়ঘড় ভাব কমে যাবে, পেট পরিষ্কার থাকবে।

(বর্তমানে যা পরিস্থতি, সেক্ষেত্রে কোনও বিশেষ অসুবিধা হলে করোনা পরীক্ষা করে নেওয়া শ্রেয়)

Leave a Reply

Your email address will not be published.