চুল রং করার জন্য বিট, লেবু, কফির পাশাপাশি যে জিনিস গুলি ব্যবহার করবেন

নিউজ ডেস্কঃ আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা চুলে রঙ করাতে ভালোবাসেন। আবার অনেকে তো প্রতি মাসে পার্লারে গিয়ে চুলের বিভিন্ন রং নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট করতেও পছন্দ করেন ।আর তা হবে নাই বা কেন ?চুলের রঙ শুধু যে চুলকে দেখতে সুন্দর করে তাই নয় গোটা মুখের ও যেন এক মেকওভার হয়ে যায় এর ফলে।তবে করানোর ভয়ে এখন পার্লারে যেতে সাহস পাচ্ছেন না অনেকেই । এক্ষেত্রে বাড়িতে বসেই কিন্তু কিছু প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে চুলের রং পাল্টে ফেলতে পারেন আপনি ।আর সবচেয়ে ভালো ব্যাপার হলো এই রং ব্যবহারের নেই কোন পার্শপ্রতিক্রিয়া ও।বাজার চলতি রাসায়নিক  মিশ্রিত রঙ এর থেকে এগুলি চুলের স্বাস্থ্যের জন্য অনেক বেশি উপকারী ।

আসুন জেনে নেই কোন কোন প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করে বাড়িতেই পাল্টে ফেলা যায় চুলের রং

বিটরুট

চুলে সবচেয়ে বেশি যে রং গুলি করা হয় তার মধ্যে লাল রঙ অন্যতম। মন মাতানো এই লাল রং কোন কৃত্রিম হেয়ার কালার ব্যবহার ছাড়াই পেতে পারেন বিটরুট ব্যবহার করে ।

এক কাপ বিটরুট এর রস ও এক কাপ গাজরের রস মিশিয়ে নিন একটি পাত্রে ।এরপর ভালো করে ওই মিশ্রণ সমগ্র চুলে লাগিয়ে শাওয়ার ক্যাপ পড়ে অপেক্ষা করুন 3 ঘন্টা ।এরপর ঠান্ডা জলে ভালো করে চুল ধুয়ে ফেললে দেখবেন চুলে এসে গেছে এক লাল আভা ।তবে আপনি যদি ডিপ লাল রং চান চুলে তবে চুলে ব্লিচ করে নিয়ে তারপর ব্যবহার করুন বিটরুট ।

লেবু

চুলে সোনালী আভা কার না পছন্দ ।আর এই সোনালী চুল পেতে আমরা হেয়ার কালার এর পেছনে অনেক টাকা খরচ করি পার্লারে ।তবে জানেন কি বাড়িতে বসেই শুধুমাত্র লেবুর রস ব্যবহার করে পেতে পারেন আপনি চুলে সোনালী আভা ।

প্রথমে একটি পাত্রে প্রয়োজনমতো লেবুর রস ও সামান্য পরিমাণে জল ভাল করে মিশিয়ে নিন ।এরপর এই মিশ্রণ ভালো করে চুলে লাগিয়ে একটি শাওয়ার ক্যাপ পড়ে নিন ।এক ঘন্টা রোদে অপেক্ষা করার পরে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন ভালো করে চলে ।দেখবেন লেবুর রস চুলে এনে দিয়েছে সোনালী রঙের আভা ।

কফি

আমাদের মধ্যে অনেকেরই লাল,সোনালীর বদলে ন্যাচারাল হেয়ার কালার পছন্দ বেশি।এক্ষেত্রে একদম ডিপ খয়রি রঙের চুল পেতে ব্যবহার করুন কফি ।

এই রং পাওয়ার জন্য প্রথমেই বেশ কিছুটা ব্ল্যাক কফি বানিয়ে ফেলুন ।এরপর একটি পাত্রে ব্ল্যাক কফির সাথে বেশকিছু তা হেয়ার কন্ডিশনার মিশিয়ে নিন ।মিশ্রণটি ভাল করে চুলে এক ঘণ্টা লাগিয়ে রেখে দিন ।এরপর জল দিয়ে ধুয়ে ফেললেই দেখবেন সুন্দর খয়েরি রঙের চুল ।

চা

বয়সের সাথে সাথে চুল তো সাদা হবেই ।কিন্তু এই সাদা চুল দেখতে লাগে খুব বিশ্রী ।কোনরকম হেয়ার কালার ব্যবহার না করতে চাইলে বাড়িতে ঘরোয়া উপায়ে শুধুমাত্র চা ব্যবহার করে ঢেকে নিতে পারেন এই সাদা চুল ।

এর জন্য প্রথমে 5 টেবিল চামচ চা পাতা ও এক কাপ জল ভালো করে একসাথে ফুটিয়ে নিন ।চা ঠান্ডা হয়ে এলে তা ভালো করে চুলে লাগিয়ে 30 মিনিট অপেক্ষা করুন ।এরপর ভালো করে উষ্ণ জলে চুল ধুয়ে ফেললে দেখবেন চায়ে থাকা ট্যানিন চুলকে করে তুলেছে কালো ।

মেহেন্দি

চুলে রং করার সবচেয়ে জনপ্রিয় ঘরোয়া উপায় হলো মেহেন্দি ব্যবহার করা ।এটি যে শুধু প্রাকৃতিক তাই নয় এর রং চুলে থাকে দীর্ঘদিন এবং চুলকে করে তোলে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল ।

লোহার বাটিতে মেহেন্দি গুঁড়ো ও চায়ের লিকার একসাথে মিশিয়ে রেখে দিন সারারাত ।চাইলে পরদিন ব্যবহার করার আগে যোগ করে নিতে পারেন একটু লেবুর রস ।ভালো করে মিশ্রণটি সারা চুলে লাগিয়ে অপেক্ষা করুন এক ঘন্টা ।এরপর চুল ধুয়ে ফেললেই দেখবেন যে কোন পাকা চুল একদম গায়েব এবং সেইসঙ্গে চুল হয়েছে সিল্কি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.