একই গাছে রামধনুর সাতটি রং। কোথায় গেলে দেখতে পাবেন বিশেষ এই গাছ?

নিউজ ডেস্ক –  ভিন্ন ধরনের গাছ রয়েছে এই গোটা ভারতবর্ষে। কোথাও ছোট তো কোথাও বড়, আবার কথাও গুল্ম জাতীয় এমন বহু গাছে আবৃত হয়ে রয়েছে সবুজের সমাহার। কিন্তু এত গাছের মধ্যে এমন একটি গাছ রয়েছে যা সকল মানুষকে তাক লাগিয়ে দেবে। এই গাছটি হলো রামধনুর প্রকৃতির গাছ। অর্থাৎ আকাশে রামধনুর সাতটি রং এর মতো গাছেও থাকে এই সাতটি রং। এটি রেইনবো ইউক্যালিপটাস নামে পরিচিত। গোটা পৃথিবীতে  শুধুমাত্র আফ্রিকার জঙ্গলেই নয় হাওয়াই, টেক্সাস, লুইসিয়ানা, দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়ার মতো জায়গায়গুলিতে এই ধরনের আশ্চর্যজনক গাছ দেখতে পাওয়া যায়। তবে বাড়ির শোভা বাড়ানোর জন্য ব্যবহৃত এই গাছগুলি রংধনুর রঙের মতোই হয়।

শোভা বাড়ানোর জন্য অনেকে বাড়িতে রাখার পাশাপাশি এই আশ্চর্যজনক গাছের স্থান হয়েছে বোটানিক্যাল গার্ডেনে। এছাড়াও এই গাছের কাঠ দিয়ে কাগজের মন্ড, ফার্নিচার, ক্যাবিনেট, নৌকা ইত্যাদি বহু আসবাবপত্র তৈরি করা হয়ে থাকে। রেইনবো ইউক্যালিপটাসের সাত রঙা  রামধনুর রংয়ের আকার ধারন করার পেছনেও রয়েছে এক রহস্যময় গল্প। জানা যায় এই গাছের গুড়িতে এমন এক ধরনের মাইন্ডানাও গাম বা রেইনবো গাম তৈরি হয় তার জন্য যখন গাছ তার বাকল পরিত্যাগ করে সেই মুহূর্তে মনে হয় গাছটিতে রামধনুর রং জড়িত হয়েছে। এই গাছের উচ্চতা সচরাচর ২৫০ ফুট হয়ে থাকে। কিন্তু গোটা পৃথিবী খুঁজে এখনো পর্যন্ত ৮ ফুট ব্যাস বিশিষ্ট গাছ দেখতে পাওয়া গিয়েছে। তবে আর পাঁচটা গাছের মত একই গঠন বা রংয়ের  হয় না। আর পাঁচটি সাধারণ গাছের থেকে বৃহৎ অংশে আলাদা করা যায় রেইনবো ইউক্যালিপটাস গাছকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.