সহস্র সন্তানের পিতা শ্রীকৃষ্ণ। এমন কেন বলা হয় জানেন?

অসম্ভবকে সম্ভব করা কিংবা অলৌকিক কোন ঘটনা ঘটানো ভগবানের কাছে কোন বড় ব্যাপার নয়। অনেকেই বলে থাকেন ভগবান শ্রীকৃষ্ণের সহস্র সন্তান আছে। যদিও এই কথাটিকে কেন্দ্র করে এখনও বিতর্ক বিদ্যমান। তাহলে একটু খোলসা করে বলা যাক। 

ভগবান নিজের রূপে কোনদিনই মর্তে আসেননি। প্রত্যেকবারই কোনো না কোনো রূপ ধারণ করে তিনি মর্তবাসিকে সঠিক পথ দেখিয়ে গিয়েছেন। যেমন বিষ্ণুর দশাবতারদের দেখুন। প্রথমে সমগ্র ব্রম্ভান্ড জলমগ্ন তখন জলজ্ব প্রাণীদের উদ্ভব।তাই মৎস অবতার।এরপর উভচর তাই কূর্ম অবতার।এরপর স্থলচর প্রাণীদের মধ্যে বরাহ অবতার।এরপর কিছুটা পশু কিছুটা মানুষদের আমল,তাই নৃসিংহ অবতার।তারপর ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র মানবগোষ্ঠীদের মধ্যে বামন অবতার। এরপর অরণ্যবাসী কাষ্ঠ সংগ্রাহকদের মধ্যে পরশুরাম অবতার।এরপর বনচারী মানুষের মধ্যে রাম অবতার। রাজন্য শক্তি ও কৃষির যুগে যথাক্রমে কৃষ্ণ-বলরাম অবতার। মানুষ যখন বুদ্ধি চর্চার দ্বারা জ্ঞানার্জনে রত তখন বুদ্ধ অবতার।আর অন্যায় অধর্ম যখন পৃথিবীকে সম্পূর্ণভাবে গ্রাস করবে তখন কল্কী অবতার রূপে অবতীর্ণ হয়ে সৃষ্টিকে ধ্বংস করবেন। এখন মায়ার আশ্রয় নিয়ে ঈশ্বর বা সেই মহাশক্তি এই ধরাধামে যুগে যুগে অবতীর্ণ হন বলে ভক্তগণ বিশ্বাস করেন। তাই যিনি সর্বশক্তিমান তাঁর পক্ষে মনুষ্যরূপ ধারণ করা কিংবা সন্তান সৃষ্টি করা অসম্ভব নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.