পৃথিবীর ভয়ঙ্কর ৪ টি ভয়ংকর বিষধর ব্যাঙ। সংস্পর্শে আসলে যেকোনো সময় মৃত্যু হতে পারে যেকোনো মুহূর্তে

নিউজ ডেস্কঃ ব্যাঙ সম্পর্কে আমরা যা জানি তাহলো যে এটি একটি ক্ষুদ্র ও নিরিহ প্রাণী। যারা মানুষের কোনো রকম ক্ষতি করে না। কিন্তু আজকের যে ব্যাঙের সম্পর্কে জানাব সেগুলি হল আমরা যেসব ব্যাঙ দেখি তাদের থেকে পুরোপুরি আলাদা। এই ব্যাঙগুলো বিষাক্ত।

১) Golden Poison Dart Frog: এই ব্যাঙগুলিকে দেখতে খুবই সুন্দর যার গায়ের রঙের জন্য খুবই আকর্ষিত লাগে।তবে এই ব্যাঙ যত সুন্দর দেখতে ততই মারাত্মক।ব্যাঙের প্রজাতির মধ্যে এই ব্যাঙটি সবচেয়ে মারাত্মক।এই ব্যাঙের দেহে থাকে প্রাণনাশকারি বিষ। এই ব্যাঙেরা প্রায় ১ ইঞ্চির মতো।

২) Black Legged Dart Frog: এই ব্যাঙগুলো খুবই মারাত্মক যার প্রায় ১৫ মাইক্রো গ্রাম বিষ একজন মানুষ মৃত্যু ঘটাতে সক্ষম।যদি দ্রুত চিকিৎসা না করা হয় তাহলে মৃত্যু অনিবার্য।এই ব্যাঙের গায়ের উপরেই এই বিষ থাকে।এরা একটি নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় গিয়ে ঘাম তৈরি করে এবং এই ঘাম তার ত্বকের সাথে যুক্ত হয়ে বিষ তৈরি করে।ওয়েস্ট কলম্বিয়াতে বেশি পরিমানে দেখতে পাওয়া এই ব্যাঙের গায়ের রঙ হলুদ এবং গায়ে কালো কালো ছোপ দেখা যায়।

৩) Blue Poison Dart Frog: মধ্য ও দক্ষিন অ্যামেরিকায় পাওয়া এই ব্যাঙগুলির জিব খুব লম্বা হয়ে থাকে।এর মাধ্যমে তারা ছোটোখাটো এমনকি বিষাক্ত পাকামাকোড়ও খেয়ে থাকে।যার ফলে এই ব্যাঙের দেহে প্রচুর পরিমানে বিষের সৃষ্টি হয় তবে তাতে এদের কোনো ক্ষতি হয় না।এর শরীরে দেখা বিভিন্ন ধরনের ডিজাইন এই বিষের ফলে সৃষ্টি হয়।

৪) Lovely Poison Dart Frog: এই ব্যাঙটি সাধারণত শান্ত প্রকৃতির হয়ে থাকে। তবে কোনো রকম বিপদের সংকেতে তারা বড়ো বড়ো প্রানীর উপর আক্রমণ করে বসে।এই কমলার উপর কালো দাগের ব্যাঙটি খুবই আকর্ষণীয় যার একটি বিশেষত্ব হল যে এর দাত থাকে।এবং এরা আকারেও খুব ছোটো হয়ে থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.