ত্বককে উজ্জ্বল করতে দুধ, কলা, ডাবের জল যেভাবে ব্যবহার করবেন

নিউজ ডেস্কঃ ফর্সা ত্বক কে না পেতে চাই কিন্তু বর্তমান দিনে তা পাওয়াটা অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে নানা কারনের জন্য।কারন এই ফর্সা ত্বক পাওয়ার জন্য মানুষকে বিভিন্ন ধরনের বাইরের প্রোডাক্ট ব্যবহার করা হয়।যাতে ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করা তো দূরে থাক সেটি আরও ক্ষতির কারন হয়ে দাঁড়ায়।তাই বাইরের প্রোডাক্ট ব্যবহার করা ক্ষরিকারক।তাহলের সৌন্দর্যটা বৃদ্ধি করবেন কি করে এটা হল প্রশ্ন।এর জন্য উপায় আপনাদের ঘরেই আছে।যা আপনাদের ত্বকে ফর্সা করে এর সৌন্দর্যটা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করবে আর এতে কোন সাইড এফেক্টও নেই।তাহলে এবার জেনে নেওয়া যাক এই ঘরোয়া উপায়গুলি। 

আমের খোসা এবং দুধ: রূপচর্চার ক্ষেত্রে দুধের বিকল্প হয় না।তাই ত্বকের উজ্জল এবং ত্বককে ফর্সা করতে দুধের সঙ্গে আমের খোসার মিশিয়ে ত্বকে লাগানো ভীষণ উপকারি।আর এর জন্য একটি পাত্রে সামান্য  আমের খোসা ভালো করে বেটে নিয়ে তাতে পরিমাণ মতো দুধে মিশিয়ে মুখে, গলায় এবং ঘোড়ে লাগিয়ে রাখুন কিছুক্ষন।তারপর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন মুখ।

লেবুর রস এবং চিনি:ত্বকের উজ্জলতা বৃদ্ধি করতে একটি পাত্রে একটা লেবুর রস নিয়ে তাতে  ১ চামচ চিনি মিশিয়ে মুখে ঘষুন ততক্ষণ যতক্ষণ না চিনিটা ত্বকের সঙ্গে একেবারে মিশে যায়।তারপর  মুখটা ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিন।এতে দেখবেন ভালো ফল পাবেন।

দুধ এবং কলা: ত্বকের উজ্জ্বল বৃদ্ধি করতেও কলা খুব উপকারি।তাই একটি পাত্রে  একটা কলা ভালো করে পেস্ট করে তার মধ্যে পরিমাণ মতো দুধ ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে মুখে লাগান।এতে ত্বকের উজ্জ্বল বৃদ্ধি করার পাশাপাশি ত্বকে ফর্সা করতেও সাহায্য করবে।

ডাবের জল: আমরা সবাই জানি যে ডাবের জল খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে ভীষণ উপকারি।কিন্তু আপনারা কি জানেন যে এই জল স্বাস্থ্যের পাশপাশি ত্বকের জন্যও ভীষণ উপকারি।এই জল ত্বকের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দূর করে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।তাই দিনে দুবার  ডাবের জল দিয়ে মুখ ধুন। এতে ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধির পাশাপাশি ত্বক ফর্সা করতে এবং মুখের দাগ দূর করতেও সাহায্য করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.