অবসাদ ও ক্লান্তি সমস্যার সৃষ্টি হয়। অতিরিক্ত জল পান করলে যে ধরনের সমস্যা হতে পারে

নিউজ ডেস্কঃ আমরা সবাই জানি যে জল খাওয়া আমাদের স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারি।জল পরিমান মতো খাওয়া অত্যন্ত জরুরী।তা না হলে এটি শরীরে পক্ষে ক্ষতিকারক।এছাড়াও জল পরিমান মতো খেলে তা আমাদের শরীরের বিভিন্ন ধরনের কাজ করে।যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত জরুরী।এই কথাগুলি আমরা সবাই জানি কিন্তু আপনারা কি জানেন যে পরিমান মতো জল খাওয়া শরীরের পক্ষে যতটা উপকারি ঠিক ততটায় ক্ষতিকারক অতিরিক্ত জল খাওয়া।হ্যাঁ ঠিকই শুনছে জলও শরীরের শরীরের জন্য ক্ষতিকারক হয়ে উঠতে পারে।তাই জেনে নিন এই অতিরিক্ত জল খাওয়া ফলে কি কি সমস্যা হতে পারে।    

১)অতিরিক্ত জল খেলে শরীরে নানা রকমের সমস্যা যেমন- দেহের তারল্যের ভারসাম্যকে নষ্ট হওয়া, শরীরে সোডিয়ামের মাত্রা কমে যাওয়া ইত্যাদি৷এই সোডিয়াম আমাদের শরীরের পক্ষে উপকারী একটি উপাদান৷যা হ্রাস পাওয়ার ফলে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা যেমন- বমি বমি ভাব, ক্লান্তি ইত্যাদি দেখা দিতে পারে৷

২) অতিরিক্ত পরিমানে জল খেলে তার ফলে  মাথা ব্যাথার সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে৷এছাড়াও দেহে জল পরিমান বেশি হলে তার ফলে রক্তে লবণের পরিমান হ্রাস পেতে পারে৷

৩) অতিরিক্ত পরিমানে জল পান করলে তার ফলে মাসল ক্রাম্পিং সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে।কারন অতিরিক্ত পরিমানে জল পান করার ফল ইলেক্ট্রোলাইট মাত্রা হ্রাস পায়৷

৪) অতিরিক্ত পরিমানে জল পান করলে তার ফলে কিডনিতে  অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টি হয়৷যার ফলে শরীরে স্বাভাবিক হরমান ক্ষরণ প্রক্রিয়ায় সমস্যার সৃষ্টি হয়৷আর এর থেকে  অবসাদ ও ক্লান্তি সমস্যার সৃষ্টি হয়৷

Leave a Reply

Your email address will not be published.