ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনে রাখতে সাহায্য করে। মুসুর ডালের অসাধারন ৭ কাজ

নিউজ ডেস্কঃ ডালে ভাতে বাঙালি। ডাল ভালোবাসে না এমন বাঙালি খুঁজে পাওয়া বেশ মুশকিল। শুধুতাই নয় স্বাদের পাশাপাশি এই ডালের রয়েছে একাধিক গুনও। বিশেষ করে একাধিক কঠিন রোগ সারাতে এক বিরাট ভুমিকা পালন করে এই মুসুর ডাল।

হার্টকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে :মসুর ডাল হৃদযন্ত্র সচল রাখে এবং শরীর থেকে খারাপ কোলেস্টেরল কমাতে বিশেষ সহায়তা করে।মসুর ডালে উপস্থিত ফাইবার, প্রোটিন, ফলেট ও ম্যাগনেশিয়ামের যা  হার্টের কর্মক্ষমতা বাড়িয়ে  তুলতে সাহায্য করে।যার ফলে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে এবং হৃদরোগের সম্ভাবনা কমাতেও সাহায্য করে। তাই মসুর ডাল  হার্ট অ্যাটাক কে প্রতিরোধ করতে কার্যকর ভূমিকা পালন করে। এছাড়াও মসুর ডালে উপস্থিত ফাইবার শরীরে খারাপ কোলেস্টেরল কমায় এবং ভালো কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়াতে সাহায্য করে।

হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটায় : মসুর ডালে উপস্থিত ফাইবার যা শরীরে খাদ্যকে হজম করতে সহায়তা করে।তাই মসুর ডাল হজমের যেকোনো সমস্যা দূর করতে কার্যকর ভূমিকা পালন করে।এছাড়াও  মসুর ডাল কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধের সহায়তা করে।

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনে রাখতে সহায়তা করে :মসুর  ডালে ডায়াবেটিস নিন্ত্রনে রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। কারন মসুর ডালে উপস্থিত  ফাইবার যা রক্তে শর্করার মাত্রা কমিয়ে রাখে।তাই ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য মসুর ডাল খুবই উপকারী।এছাড়াও মসুর ডাল ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স এবং হাইপোগ্লাইসেমিয়ার মতো সমস্যাও কম করতে সাহায্য করে।

প্রোটিনের ঘাটতি দূর করে : মসুর ডালে প্রচুর পরিমানে প্রোটিন থাকে।যার ফলে প্রায়  ২৬ শতাংশ ক্যালরি আমাদের শরীরে প্রোটিন হিসেবে প্রবেশ করে। আর তাই মসুর ডাল খেলে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় প্রোটিনের ঘাটতি দূর হয়।

এনার্জির ঘাটতি দূর হয় : এনার্জির ঘাটতি দূর করতে মসুর ডাল খুবই কার্যকর।তাই এনার্জির ঘাটতি সমস্যায় ভুগলে মসুর ডাল খান।

ওজন হ্রাসে সাহায্য করে : মসুর ডালের একাধিক গুনাবলি আছে তাদের মধ্যে একটি অন্যতম গুন হল ওজন হ্রাস করতে সাহায্য করে। মসুর ডালে উপস্থিত কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন, উপকারী খনিজ ও ফাইবার অনেকক্ষণ পর্যন্ত পেটকে ভরিয়ে রাখে যার ফলে ওজন কমে।

গর্ভাবস্থায় মসুর ডালের উপকারিতাঃ মসুর ডালে আছে আয়রন ও ফলেট ।যা  গর্ভবতী নারিদের জন্য খুবই প্রয়োজনীয় উপাদান।তাই মসুর ডাল গর্ভবতী নারিদের ক্ষেত্রে উপকারী।এছাড়াও মসুর ডালে উপস্থিত আয়রন রক্তশূন্যতা প্রতিরোধে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.