ঋতুচক্র শুরু হওয়ার আগেই যে দেশের মেয়েদের বিক্রি করা হয়

নিউজ ডেস্ক – বর্তমানে লাভ ম্যারেজ বা অ্যারেঞ্জ ম্যারেজ বিবাহ দেখা যায়। কিন্তু এই বিশ্ব তথা পৃথিবীর সিংহ ভাগ মানুষই অবগত নয় কোন বাজারের সম্পর্কে। নামটা শুনলেই বড়ই অদ্ভুত। কোন বাজারে এমন হয় নাকি! বাজারে নিয়মিত শাকসবজি থেকে শুরু করে মাছ বা কোন আসবাবপত্র দরদাম করে কেনা হয়। সেখানে কোনে বিক্রি হয় কি করে! সবার মনে এই বিষয়টি কৌতুহলী হলেও আদতে বাস্তবে ইউরোপের বুলগেরিয়ার একটি অংশে রয়েছে যার নাম স্টার জাগোরা। আটিগ্রাম বলে পরিচিতি লাভ করলেও বর্তমানে এটি শহরতলী। একদিকে অভিনব প্রক্রিয়ায় এখান থেকে কোনে কেনাবেচা করা হয়। কি বুঝলেন না তো? সহজ ভাষায় বলতে গেলে একবার ঘুরে আসতে হয় সেই আজব বাজারে। 

বুলগেরিয়ার ছোট এক জনগোষ্ঠী হলো রোমা। তারা রক্ষণশীল খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের মানুষ। এদের মূল পেশা হলো তাম্রকার। সংখ্যায় রোমা সম্প্রদায়ের মানুষেরা সংখ্যালঘু মাত্র ১৮ হাজার জনগোষ্ঠী রয়েছে এদের মধ্যে। এই গোষ্ঠীর ভাবধারা বড়ই গোঁড়ামি প্রকৃতি। ছেলেমেয়েদের মিসতে দেওয়া হয় না যাতে কিনা ওরা যদি কোনো ভালোবাসার সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। এমনকি মেয়েরা একটু বড় হলেই তাদের স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দেয়। যদি স্কুল যেতে গিয়ে কোনো বিপদের মুখে পড়ে সম্মান নষ্ট হয় মেয়েদের তাই তাদের এক ঘরেই করে রাখা হয়। এই সকল দিক থেকে গোঁড়ামি করলেও রীতি অনুযায়ী ঠিক বিয়ের প্রথা রয়েছে এখানে। তবে অন্যান্য জায়গার তুলনায় এখানে বিয়ের রীতি সম্পূর্ণ আলাদা। বিয়ের জন্য এখানে বরদের কোনে কিনে নিয়ে বিয়ে করতে হয়। বছরে চারবার গ্রীষ্ম ও বসন্তকালে বাজার বসানো হয় গোটা দেশে। সেখানে কোনেরা তাদের বাবা-মায়ের সঙ্গে সেজেগুজে বাজারে আসে এবং তাদের সৌন্দর্য ও আকর্ষণীয়তার উপর মোহিত হলেই কোন পুরুষ তাকে কিনে নিয়ে বিয়ে করেন। বর্তমানে ওই প্রথার প্রচলন রয়েছে রোম নগরীতে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published.