কলকাতার ভূতবাড়ি কাকে কোন ভবনকে বলা হয়?

নিউজ ডেস্কঃ বলা হয় যে শুভ শক্তি থাকলে অশুভ শক্তিও থাকে।তাই ভগবান থাকলে ভুতের অস্তিতও আছে।যারা বলে যে ভুত বলে কিছু হয় না তাই তাদের জানাই যে যেসমস্ত জিনিস চোখে দেখা যায় না সেগুলির অস্তিত নেই এটা ভাবাটা ভুল।কারন আমরা  অনেক জিনিস চোখে না দেখতে পেলেও তার অস্তিতও অনুভব করতে পারি।তেমনি ভুতকে আমরা চোখে না দেখলেও অনুভব করতে পারি।তাই ভুতেও অস্তিতও আছে। আর এরই প্রনাম পাওয়া গেছে আকাশবাণী ভবনে।   

আকাশবাণী ভবন সম্পর্কে বেশি বিশদে বলার কিছু নেই কারন এই ভবনের ইতিহাস প্রায় সবাই জানে।কিন্তু এই ভবনের উজ্জ্বল দিকের সাথে একটি কালো দিকও আছে।আর এই কালো দিকটি  হল এই ভবনে ভুতের অস্তিত।অনেকে বলেন যে তারা নাকি দেখেছেন ওই ভবনে হ্যাট,কোর্ট পরিহিত ইংরেজ সাহেবের ছায়া মূর্তি। যারা মঝে মধ্যেই ঘরে প্রবেশ করতেন আর অভ্যাসবশত ফাইল পত্র নিয়ে ঘাটাঘাটি করতেন।এছাড়াও কেউ কেউ দেখেন মধ্যরাতে রেকর্ডিং রুমের বাইরে দাঁড়িয়ে কে যেন গান শুনছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.