গ্যালিলিওর মৃত্যু কেন গোটা পৃথিবীকে চমকে দিয়েছিল?

নিউজ ডেস্ক:~ গ্যালিলিও। পৃথিবীকে কুসুংস্কার থেকে আধুনিক দিকে নিয়ে গেছিলেন এমন কিছু মানুষের মধ্যে একজন। ধর্মীয় কুসংস্কারের বেড়াজাল থেকে যিনি পুরো বিশ্বকে দেখেছিলেন আলোর মুখ , সং 1564 খ্রিস্টাব্দে ইতালির পিসা নগরে জন্মগ্রহণ করে খ্যাতিনামা জ্যোতির্বিজ্ঞানী, গণিতজ্ঞ ও দার্শনিক গ্যালিলিও।

        প্রাচীনকালের  পৃথিবী, সূর্য ও নক্ষত্র সম্পর্কে প্রচলিত মতবাদের বিরুদ্ধে তিনি নতুন মত প্রকাশ করেছিলেন। তিনি কোপার্নিকাসের পৃথিবী সূর্যের চারপাশে ঘোরে এই মতটির সমর্থন করেন এবং তা প্রমাণ করেছিলেন।

        গ্যালিলিওর যুগান্তকারী আবিষ্কার দূরবীক্ষণ যন্ত্র, এই দূরবীক্ষণ যন্ত্র দিয়ে মহাকাশের বিভিন্ন অজানা তথ্য,জ্যোতিষ্ককে মানুষের দৃষ্টি গোচর করে  তোলেন। এছাড়াও এর সাহায্যে মহাকাশের কক্ষপথ, বৃহস্পতির চারটি উপগ্রহ আবিষ্কার করেছিলেন।

           তৎকালীন সময়ে পোপ ও যাজকরা ছিলেন সমাজের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ। বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের গঠন সম্পর্কে তাঁর দেওয়া তথ্য গুলি বাইবেল বিরোধী হওয়ায় তিনি পোপ ও যাজকদের অপছন্দের ব্যক্তি হয়ে উঠেছিলেন। এবং তার এই সকল মতবাদ এর বিরুদ্ধে পোপ যাজকরা  একজোট হয়ে ওঠেন এবং গ্যালিলিওকে তারা পাগল ও  উন্মাদ প্রমাণ করার জন্য বিভিন্ন ধরনের ষড়যন্ত্র করতে থাকেন।
   রোমান ধর্ম আদালত বা ইনকুইজিশনে তাঁর বিচার হয় এবং তাঁকে গৃহবন্দি গৃহবন্দী করে রাখে। বহুদিন গৃহবন্দি থাকায় তিনি বিভিন্ন ব্যধিতে আক্রান্ত হয়। এবং 1642 খ্রিস্টাব্দে  নানা দুরারোগ্য ব্যাধি ও অন্ধ অবস্থায়  তাঁর মৃত্যু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.