কফি খাওয়ার যে বিপদ গুলি বাড়ছে

নিউজ ডেস্কঃ কফি খাওয়াটা প্রায় মানুষের কাছে অভ্যাস হয়ে দাঁড়িয়েছে।অনেক মানুষ রোজ দিনে অনেক বার কফি খায়।কফি খাওয়া যে উচিত নয় সেটা নয় কারন অল্প মাত্রায় কফি খেলে শরীরে  তেমন ক্ষতি হয় না৷তবে সেটি বেশি মাত্রায়  খেলে তা শরীরে পক্ষে মারাত্মক ক্ষতিকারক। এই বেশি মাত্রায় কফি খেলে শরীরে নানা ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। তাই যারা বেশি মাত্রায় কফি খান তারা জেনে নিন যে  বিশেষজ্ঞরা এই বিষয় কি বলেন।

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছে যে কফিতে থাকে অতি উচ্চমাত্রার অ্যান্টি অক্সাইড যা শরীরের জন্য উপকারী৷ তবে কফি অত্যাধিক মাত্রায় খেলে তা দেহে প্রবেশ করলে ওজন বৃদ্ধি পায় এছাড়াও এর থেকে একাধিক নানা ধরনের সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়৷

এছাড়াও পুষ্টি বিশেষজ্ঞরা বলেছেন যে কফিতে উপস্থিত  ক্যাফিন যা হৃৎস্পন্দন এবং নিঃশ্বাস-প্রশ্বাসের গতি বৃদ্ধি করে৷ যার ফলে উত্তেজনা ও চিন্তা সমস্যা দেখা দেয় এবং এর থেকে মস্তিষ্কের কার্টিসোল নামক স্ট্রেস হরমোনের স্তর করে৷ যার ফলে স্থূলতার সমস্যা দেখা দেয়৷

তাহলে এবার জেনে নিন যে কতটা কফি পান করা উচিৎ- এই নিয়ে বিশেষজ্ঞরা বলেছেন যে চিনি দিয়ে কফি খাওয়া শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর৷ এতে ওজন বৃদ্ধি করে৷তাই চিনি ছাড়া অল্প মাত্রায় কফি খাওয়া শরিরে পক্ষে উপকারি।কিন্তু বেশিমাত্রায়  কফি খাওয়া শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক৷তাই দিনে দু বার বা তিন বার খান৷তবে কম পরিমাণ কফি দিয়ে  চিনি ছাড়া লিকার বানিয়ে খান৷ তবে হৃদরোগের ব্যক্তিদের জন্য কফি পান করার বিষয়টি চিকিৎসকের পরামর্শ মেনেই চলা অত্যন্ত জরুরী৷

Leave a Reply

Your email address will not be published.