ত্বকের উজ্জলতা বৃদ্ধি করতে পারে। মেথি ব্যবহারের নিয়ম জেনে রাখুন

নিউজ ডেস্কঃ মেথি মূলত মশলা হলেও ত্বক, চুল ও স্বাস্থ্যের উপকারের জন্য মেথি অতুলনীয়। মেথি ভেজানো জল একদিকে যেমন শরীরের জীবানুনাশক হিসাবে সাহায্য করে তেমনি অপরদিকে চুলের যত্নে মেথির গুরুত্ব ও অপরিসীম। শুধু চুল বা স্বাস্থ্য ই নয় ত্বক চর্চা তেও মেথির ব্যবহারের অসংখ্য উপকারিতা রয়েছে।তা কি জানেন ?ত্বকের সংক্রমণ থেকে শুরু করে আপনার ত্বকের অন্যান্য যাবতীয় সমস্যা দূর করতে পারে মেথি দিয়ে তৈরি কয়েকটি ফেসপ্যাক ।আসুন জেনে নেই ত্বকের কোন সমস্যায় ব্যবহার করতে পারেন কোন ফেসপ্যাকটি ।

১. ত্বকের ডিপ ক্লিনজিং এর জন্য

মেথি ত্বককে ভেতর থেকে পরিষ্কার রাখে। রোজকার দূষণে আমাদের ত্বক হয়ে ওঠে তৈলাক্ত ও ত্বকে জমা হয় না না ময়লা  ।সাধারণ ফেসওয়াসের ব্যবহারে অনেক সময়ই সম্পূর্ণভাবে পরিষ্কার হয় না নাছোড়বান্দা এই ধুলো-ময়লা ।সেই জন্য সপ্তাহে দু-তিনবার প্রয়োজন ডিপ ক্লিনজিং এর ।আর এই জন্য ব্যবহার করতে পারেন মেথির তৈরি ফেসপ্যাক ।

প্রয়োজন মতো মেথি চার থেকে পাঁচ ঘন্টা ভিজিয়ে রেখে পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে ।এরপর দুই টেবিল-চামচ দুধের সাথে ভালো করে মিশিয়ে চোখ বাদ দিয়ে সারা মুখ ও গলায় পনেরো থেকে কুড়ি মিনিট লাগিয়ে রাখতে হবে ।এরপর হালকা গরম জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেললেই পেয়ে যাবেন পরিষ্কার ত্বক ।এটি ত্বকের লোমকূপ খুলে দিয়ে ভেতর থেকে যাবতীয় ময়লা বের করে আনে ।

২. ত্বকের উজ্জলতা বৃদ্ধি

রোজকার কর্মব্যস্ত জীবনে ত্বকের ভালো করে যত্ন নেওয়ার সময় আমাদের মধ্যে অনেকেই পায় না ।যার ফলে হারিয়ে যায় ত্বকের স্বাভাবিক উজ্জ্বলতা ‌এবং ত্বক হয়ে ওঠে কালো ও শুষ্ক ।এক্ষেত্রে ত্বকের উজ্জ্বলতা ফিরিয়ে দিতে মেথি অসাধারণ কাজ দেয় ।

1 টেবিল-চামচ মেথির গুড়ার সাথে 1 টেবিল চামচ টক দই ভালো করে মিশিয়ে সপ্তাহে দু-তিনবার গোটা মুখে ও গলায় ভালো করে মেখে আধঘণ্টা রেখে দিন । তারপর ঠান্ডা জলে ভালো করে মুখ ধুয়ে ফেলুন। কয়েক দিন ব্যবহার করলে দেখবেন ত্বকের পুরনো জৌলুস ফিরে এসেছে । 

৩. ডেড স্কিন সেলস দূর করতে

ডেড স্কিন সেলস আমাদের ত্বককে করে তোলে রুক্ষ ।ত্বকে সময়ের আগেই পড়ে যায় বয়সের ছাপ ।অথচ এই মৃত চামড়া দূর করা নেহাত সহজ কাজ নয় । এক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন মেথি ও মধু দিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক ।

1 চা চামচ মেথি পেস্ট এর সাথে 1 চা চামচ মধু একটি পাত্রে ভালো করে মিশিয়ে নিন ।মিশ্রণটি ভালো করে ত্বকে লাগিয়ে কুড়ি থেকে ত্রিশ মিনিট রাখতে হবে । এরপর হালকা গরম জলে মুখ ভালো করে ধুয়ে ফেললে ত্বক এর যাবতীয় মরা চামড়া দূর হওয়ার পাশাপাশি ত্বক থেকে বয়সের ছাপ ও যাবে উধাও হয়ে ।

৪. ত্বকের কালো ছোপ দূর করতে

ক্ষতিকারক সূর্য রশ্মির প্রভাবে ত্বকে প্রায়ই কালো ছোপ দেখা যায় ।এটি একদিকে যেমন ত্বকের স্বাভাবিক জৌলুস নষ্ট করে তেমনি দেখতেও লাগে অনেকটা বয়স্ক। এই রোদে পোড়া দাগ দূর করতে খুব ভালো কাজ দেয় মেথির তৈরী ফেসপ্যাক ।

কিছুটা মেথি জলে ভালো করে সেদ্ধ করে নিতে হবে প্রথমে ।সেই জল ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে নিন প্রথমে ।ত্বকের দাগ দূর করতে প্রতিদিন রাতে অল্প একটু মেথির জলের সাথে এক চা চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে মুখে হাতে ও গলায় লাগিয়ে নিন।নিয়মিত ব্যবহারে দেখবেন ত্বকের যাবতীয় দাগ দূর হয়ে গেছে  ।

তবে আপনার যদি অয়েলি স্কিন হয়ে থাকে তবে আলিভ অয়েল ব্যবহার না করে কালো ছোপ দূর করার জন্য আপনি মেথি দিয়ে তৈরি এক অন্য ফেসপ্যাক ও তৈরি করতে পারেন ।এক টেবিল চামচ মেথি সারারাত জলে ভিজিয়ে রেখে পেস্ট তৈরি করে নিন প্রথমে ।এক চা চামচ দই, দুই চা চামচ গোলাপজল এর সাথে তা মিশিয়ে তৈরি করে নিন ফেসপ্যাক ।নিয়মিত এটি ব্যবহারে পাবেন একই ফল।

৫.রিংকেলস কমাতে

বয়সের সাথে সাথে ত্বকে ভাঁজ পড়া,রিংকেলস এর মতো সমস্যা হতেই থাকে ।এক্ষেত্রে দামি ক্রিম এর বদলে ব্যবহার করে দেখতে পারেন মেথি দিয়ে তৈরি ফেসপ্যাক ।

জলে কয়েক ঘণ্টা মেথি ভিজিয়ে রেখে প্রথমে তৈরি করে ফেলুন পেস্ট ।এরপর মধু ও বেসন অল্প পরিমাণে সেই পেস্টের সাথে মিশিয়ে নিন ।নিয়মিত ত্বকে ওই ফেসপ্যাক 30 মিনিট লাগিয়ে রেখে দিন ।তারপর ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ভালো করে ধুয়ে ফেলুন দেখবেন ত্বকের দাগ অনেকটা কমে গেছে ।  সেই সঙ্গে এটি ডার্ক সার্কেল কমাতে সাহায্য করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.