কার্বন ডাই অক্সাইড বৃদ্ধির বিষয়ে দ্যা ডিপ কার্বন অবজারভেটরের ৫০০ বিজ্ঞানী একটি আন্তর্জাতিক দল তৈরি করে গবেষণা

নিউজ ডেস্কঃ সম্প্রতি পৃথিবীর বুকে বেড়েই চলেছে কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্রা যার প্রভাবে বিশ্বে দেখা দিয়েছে খড়া এবং পৃথিবীর বুক থেকে শুকিয়ে যাচ্ছে জল। সকলেই মনে করেন আগ্নেওগিরি থেকে নিঃসৃত কার্বন-ডাই অক্সাইডের  মাধ্যমেই পৃথিবীর বক্ষে তাপমাত্রা বেড়ে চলেছে। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা এই ধারনাটি সম্পুর্ন ভুল প্রমাণিত করেছে। 

কার্বন ডাই অক্সাইড বৃদ্ধির বিষয়ে দ্যা ডিপ কার্বন অবজারভেটরের ৫০০ বিজ্ঞানী একটি আন্তর্জাতিক দল তৈরি করে গবেষণা করে দেখেছেন আগ্নেয়গিরি থেকে যে পরিমাণ কার্বন ডাই-অক্সাইড নিঃসরণ হয় তার তুলনায় পৃথিবী পক্ষে মানুষের থেকে তার ১০০  গুণ বেশি কার্বন নির্গত হচ্ছে। এছাড়াও বর্তমানে বৃক্ষ ছেদনের জন্য প্রকৃতি কার্বন-ডাই-অক্সাইড শোষণ না করতে পারায় সেটি আরও মারাত্মক আকার ধারণ করছে। যার কারণে অতিরিক্ত কার্বন ডাই অক্সাইডের প্রভাব পড়ছে জল বায়ুমন্ডলেও। 

বিশেষজ্ঞদের ২০১৮ সালের গণনা অনুযায়ী মনুষ্য প্রজাতির জন্য প্রকৃতিতে কার্বন ডাই-অক্সাইড নির্গমন হয় ৩৭ গিগাটোন। যেখানে আগ্নেয়গিরি থেকে নির্গত কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্রা ০.৩-০.৪ গিগাটোন। তাই বিশেষজ্ঞদের ধারণা কার্বন ডাই অক্সাইডের বৃদ্ধিতে দাড়ি না টানলে বর্তমানে মানুষ সহ পৃথিবীর সকল প্রজাতি ক্ষতিগ্রস্ত হবে এবং ভবিষ্যতে  এক মারাত্মক বায়ুমণ্ডল সৃষ্টি হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.