১০০ মিলিলিটার রক্তে ১.০ মিলিলিটার এর ওপরে বিলিরুবিন থাকলে জন্ডিস হয়ে থাকে। কিভাবে তা বুঝতে পারবেন?

নিউজ ডেস্ক: জন্ডিস। প্রাচীনকাল থেকে এই রোগের ব্যাপারে শোনা যায়। তবে একথাটা সকলেরই অজানা যে ঘরে থেকে জন্ডিস রোগীদের খুব সহজ পদ্ধতিতে  ঠিক হবার  উপায় আছে। তবে আজ এই কথাটি  নিয়ে আলোচনা করা হবে।

এই জন্ডিসকে ভাইরাল হেপাটাইটিস ও বলা হয়ে থাকে। ১০০ মিলিলিটার রক্তে ১.০ মিলিলিটার এর ওপরে বিলিরুবিন থাকলে জন্ডিস হয়ে থাকে।

লক্ষণ 

জন্ডিস রোগ নয় এটিকে রোগের লক্ষণ বলা হয়। এটির লক্ষণ গুলি হল চোখ, মূত্র ,গায়ের রং হলুদ হয়ে যায় এছাড়া দুর্বলতা ,কাজে অনীহা ,না খাওয়া, পেট খারাপ ,মাথা ধরা, জ্বর ইত্যাদি হয়ে থাকে। শুধু মাথা বাদ দিয়ে পুরো শরীর হলুদ হয়ে যায় এবং চোখের উজ্জলতা হারিয়ে যায়।

কি কি খাওয়া উচিত

জন্ডিস হলে সব ধরনের খাবার খাওয়ার প্রয়োজন আছে। জন্ডিস হলে খাবার খাওয়া টা খুবই প্রয়োজনীয় এর মধ্যে আমিষ, শর্করা, ভিটামিন খাবার প্রয়োজন যাতে যকৃতের সমস্যা না হয়।

সাধারণত শরীরের পরিস্থিতি খুবই দুর্বল থাকে সেই কারণেই তাদের তরল পদার্থ খাওয়া দরকার। তরল পদার্থ বারবার খেলে অরুচি দেখা যায় না। আর কোন ঝাল জাতীয় খাবার বা মসলাজাতীয় খাবার না খাওয়া প্রয়োজন।  ভাজাপোড়া খাবার খেলে লিভারের চাপ পড়ে এর ফলে অধিক চর্বি লিভারে বিশ্রামের বাধা পায়। এইজন্য খুব সাবধানে জন্ডিস রোগীদের খাবার দেওয়া প্রয়োজন।

জন্ডিস রোগীরা যে জিনিসগুলো খাবেন না সেগুলি হল খাসির মাংস,গ্যাস হয় এমন সবজি বাঁধাকপি ,ওল কপি, পেঁয়াজ, মুলা, ফুলকপি, শিম, বেগুন, ডাটা এছাড়া ও টক জাতীয় খাবার তেঁতুল, কাঁচালবণ ,অ্যালকোহল, মরিচ ,সরিষার তেল ইত্যাদি খাওয়া প্রয়োজনীয় নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.