দুর্যোধনের থেকে কোন অংশে কম ছিলনা দুঃশাসন। কেন একথা বলা হয়?

নিউজ ডেস্ক  –   মহাভারত ও রামায়ণ পাঠ করেন শিশুরা ছোট থেকে বড় হয়ে ওঠে। কিন্তু রামায়ণের থেকেও বেশি জট পাকানো অধ্যায় হচ্ছে মহাভারত। তবে বিষয়টি ব্যাপকভাবে জলঘোলা হলো কৌরব এবং  পান্ডব বংশে নিয়েই তৈরি হয়েছে গোটা মহাভারত। তবে মহাভারতে দুর্যোধনের পাশাপাশি যদি কারোর থাকে সেটা হচ্ছে একমাত্র তারা ভাই দূঃশাসন।  কারণ  দুঃশাসনের ছিলেন একমাত্র দুর্যোধনের অপকর্মের সর্বক্ষণের ছায়া সঙ্গী।  সে ক্ষেত্রে এক কথায় বলা  যায় মহাভারতের সবচেয়ে ভিলেন যদি দূর্যোধন হয় তাহলে দুঃশাসনও কোন অংশে কম নয়।  

শৈশব থেকেই দুর্যোধনের সর্বক্ষণের সঙ্গী ছিলেন দূঃশাসন। কারণ ছোটবেলায় ভীমকে জলে ডুবিয়ে হত্যা করার ঘটনায় দুর্যোধনের একমাত্র সাথ দিয়েছিলেন দূঃশাসন।  এমনকি কৌশলে যখন পাশা খেলায় পঞ্চ পাণ্ডবরা হেরে যায় তখনো দ্রৌপদীর বস্ত্রহরণ থেকে শুরু করে তার কেশ ধরে টেনে হিঁচড়ে নেওয়ার কাজটা নিজ হাতে সম্পন্ন করেছিলেন দূঃশাসন।  

পরবর্তীতে যদিও দুঃশাসনকে দ্রোপদী পায়ে ফেলার আশ্বাস দিয়েছিলেন ভীম। যদিও কোন ক্ষেত্রে যুদ্ধে মহাবীর তার প্রতিকার ও কাপড়ের দ্রৌপদীর পায়ের কাছে এনে  ফেলেছিল দুঃশাসনকে।  এবং তার রক্তে নিজের কেশ  ধুয়ে ছিল দ্রোপদী।

Leave a Reply

Your email address will not be published.