খাওয়ার পর স্নান! হজমের সমস্যার পাশাপাশি যে সমস্যা গুলি হবে আপনার

নিউজ ডেস্কঃ আমাদের একটি অভ্যাস আছে যে স্নান করার পর খাওয়া দাওয়া করার।এই রীতিটি প্রায় সব মানুষই অনুসরন করে চলে।তবে কিছু কিছু সময় অবস্থার চাপে বা অন্য  কোনো কারনের জন্যে এর উল্টোটা ঘটে অর্থাৎ আগে খেয়ে নিয়ে তার পর স্নানে করা হয়। কিন্তু নিয়মটা ভাঙা উচিত কি উচিত নয় এটা নিয়ে কি কখন ভেবে দেখেছে।না ভেবে থাকলে এই বিষয়টি নিয়ে ভাবুন যে যখন খাওয়ার পরে আপনি স্নানে যান তখন  আপনার শরীরে ঠিক কী ঘটে? 

আমরা যখন স্নান করি সেই সময় আমাদের শরীরের উপরিভাগে  ঠান্ডা জল পড়ে শরীরের  তাপমাত্রা আকস্মিক ভাবে হ্রাস পায়।আর এই তাপমাত্রা হ্রাস পাওয়া জন্যে ত্বকের স্বাভাবিক তাপমাত্রা ফিরিয়ে আনতে চেষ্টা করে মস্তিস্ক। আর সেই জন্যই  ত্বকের দিকে প্রবাহিত হয় শরীরের রক্ত।আবার অন্যদিকে গৃহীত খাদ্য পরিপাকের জন্য পাকস্থলি এবং পাচনতন্ত্র সংলগ্ন অংশে রক্তের প্রয়োজন।কিন্তু ত্বকের দিকে অধিকাংশ রক্ত প্রবাহিত হয়ে যাওয়ায় জন্যে পাচনতন্ত্রে রক্তের অভাব ঘটে।যার ফলে ব্যাহত হয় খাদ্য পরিপাকের কাজ। এবং এতে  হজমের সমস্যা দেখা দেয়।এছাড়াও যদি খেয়ে উঠে দীর্ঘ সময় ধরে স্নান করা হয়, তা হলে রক্তের প্রবাহ ত্বকের অভিমুখী হয়ে ওঠে ঠিকই। সে ক্ষেত্রে খাবার হজমের সমস্যা দেখা দিতেই পারে। 

তাই খাবার পর স্নান করলে হজমের সমস্যা দেখা দেওয়া একটি অন্যতম কারন হল শরীরে তাপমাত্রা কারন আমরা সবাই জানি যে  স্নানের পরে শরীরের তাপমাত্রা কমে যায়। তবে আপনাদের হয়ত মনে হতেই পারে যে শরীরের তাপমাত্রার সঙ্গে হজমের কী সম্পর্ক? অবশ্যই সম্পর্ক আছে কারন হজম প্রক্রিয়া ঠিক মতো হয়, তার জন্য শরীরের তাপমাত্রা একটা নির্দিষ্ট মাত্রায় থাকাটা একান্ত প্রয়োজন। আর এই জন্যই খাওয়ার পরে স্নান করলে শরীরের তাপমাত্রা কমে যায়। যার ফলেস্বাস্থ্যহানির ঝুঁকি কিছুটা থেকেই যায়।তাই স্নানের পরে খাওয়াটা সর্বদাই স্বাস্থ্যসম্মত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.