ডলফিন প্রেমপত্র দিচ্ছে

নিউজ ডেস্ক  –  ছেলেরা মেয়েদের প্রেমপত্র ব্যাপারটা সহজ। কিন্তু এবার বর্তমানে বন্ধুত্বের অন্যতম নিদর্শন অর্থাৎ ডলফিনরা মেয়েদের দিচ্ছে প্রেম প্রস্তাব। তাও আবার নিজেদের ভাষায়। বিজ্ঞানীরা গবেষণা করে জানিয়েছেন  বটলনোজ ডলফিনদের বিশেষ বৈশিষ্ট্য থাকে।

গবেষকদের একটি গবেষণা নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছিল যার নাম কারেন্ট বায়োলজি। সেখানেই বলা হয়েছিল,  বটলনোজ  ডলফিনদের ভারত প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল, উত্তর অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণে চীন সাগর আফ্রিকা এবং পূর্ব উপকূলে দেখতে পাওয়া যায়। সুতরাং এদের উপর একাধিকবার পর্যালোচনা করে প্রকাশিত হয়েছে যে এ প্রজাতির ডলফিন শো শো শব্দ ব্যবহারের মাধ্যমে নিজের মনের ভাব ব্যক্ত করতে সফল হয়।  মানুষ যেমন আস্তে জোরে কথা বলে ঠিক সেইভাবেই এই ডলফিনরা আস্তে জোরে শেষ দিয়ে আওয়াজ বের করে নিজেরা কথা বলে। পাশাপাশি এদের বন্ধুত্ব এতটাই গাঢ় হয় যে এরা আমৃত্যু পর্যন্ত সেটি নেভায়।  এমনকি দেখা গিয়েছে তারা তাদের বন্ধুর সঙ্গে একসঙ্গে চলাফেরা করে, একসঙ্গে খাওয়া-দাওয়া ঘোরাফেরা সব করে। আবার বন্ধুর বিপদে ঝাপিয়ে পড়ে। মাঝেমধ্যে মেয়েদের দলে উঁকি মেরে নিজেদের প্রেম নিবেদন করে থাকে। সুতরাং এই প্রজাতির ডলফিনকে  মানুষের থেকে কোন অংশে কম বলা চলে না।  

অন্যদিকে আবার ডলফিন এসেছিস অর্থাৎ তাদের প্রজাকে কি ভাষায় কথা বলে তা নিয়ে ২০১৩ সাল থেকে ইতিমধ্যেই গবেষণা করতে শুরু করে দিয়েছে  ইউনিভার্সিটি অব ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার জীববিজ্ঞান ও ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক এক্সপ্লোরার ডক্টর স্টিফেন কিং।  এখনো চলছে সেই গবেষণা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.