বারবি ডলের দেখানোর জন্য ২৬ বার প্লাস্টিক সার্জারি করেছিলেন যে মহিলা। শেষ পর্যন্ত কি হয়েছিল জানেন?

সার্জারি বিষয়টা এখনকার দিনে প্রচলিত হয়ে গিয়েছে।তাই অনেক মানুষই নিজেদেরকে সুন্দর করতে নানা রকমের সার্জারি করে থাকে।এই রকম কয়েকটি ধনী মানুষ যারা নিজেদেরকে কার্টুনের মতো বানানোর জন্য সার্জারি করেছে।

১) Herbert Chavez: এই মানুষটি ছোটোবেলা থেকেই সুপার ম্যানের ভক্ত  ছিলেন।তাই তিনি চাইতেন সুপারম্যানের মতো হতে।আর এই ইচ্ছেটা তার বড়ো হওয়ার সাথে সাথে আরও বেশি প্রখর হয়ে উঠে।এই ইচ্ছেটাকে সফল করার জন্য  তিনি নিজের মুখে প্রায় ২৬ বার প্লাস্টিক সার্জারি করেছেন।সার্জারি করার পরে তার নাক ও মুখের আকৃতি বদলে যায়।এমনকি তার চেহারার মধ্যে অ্যাসিড পর্যন্ত ব্যবহার করেছে যাতে তাকে ম্যান অফ স্টিলের মতোও দেখতে লাগে।

২) Valeria Lukyanova: এই মেয়েটি ছোটোবেলা থেকেই বারবি ডলের খুব বড়ো ভক্ত ছিলেন। তাই তিনি চাইতেন সে যেন বারবি ডলের মতো দেখতে হয়।আর এই ইচ্ছেটা তার বড়ো হওয়ার সাথে সাথে আরও বেশি প্রখর হয়ে উঠে।তাই তিনি তার  ইচ্ছেটা পূরণ করার জন্য অনেক সার্জারি করেছে।যেমন-নাকের সার্জারি, চোখের সার্জারি, ব্রেস্ট সার্জারি মতো আরও অনেক সার্জারি করেছেন।এমনও জানা যায় যে ভেলেরিয়া নাকি অপরেশান করে তার শরীর থেকে চর্বি এবং হাড়ও বের করে ফেলেছেন।তাই এখন ভেলেরিয়াকে যদি কেউ দেখে তাহলে বুঝতেই পারবেন না একটি মানুষ নাকি একটি বারবি ডল।

৩) Melynda Moon:ক্যানাডার মডেল মেলেন্ডা লর্ড অফ দ্যা রিং-এর নায়ক অ্যালফিডার খুব বড়ো ভক্ত ছিলেন।অ্যালফিডার বাঁকানো কান মেলেন্ডা খুবই পছন্দের ছিল।তাই মেলেন্ডা তার কানকে অ্যালফিডার মতো করার জন্য সার্জারি করে।এই সার্জারির জন্য তিনি ৩৫০ ডলার খরচ করেন।মেলেন্ডা সাধারন মানুষের মতো নিজেকে রাখা পছন্দ করত না তাই তিনি ভিন্ন লুকে নিজে রাখেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.