জাপানকে সূর্যোদয়ের দেশ বলা হয় কেন?

নিউজ ডেস্কঃ জাপান সূর্যোদয়ের দেশ হিসেবে পরিচিত।তবে এর মানে এটা নয় যে  একটি নতুন দিনে সূর্যের প্রথম কিরণ জাপানের মাটিতে পড়ে বা জাপানে প্রথম সূর্যোদয় দেখা যায়।তাহলে কেন জাপানকে সূর্যোদয়ের ‌‌‌‌‌দেশ বলা হয়ে থাকে?  

জাপানি ভাষায় দেশটিকে বলা হয় নিহন (নিপ্পন)। নিপ্পন এবং জাপান উভয়ই একই শব্দ থেকে উদ্ভূত; এর অর্থ হল “যেখানে সূর্য ওঠে”।ধারনা করা হয় যে,সবচেয়ে পূর্বের দেশ হিসেবে জাপানকে  ইউরোপীয় উপনিবেশের সময় থেকে বিবেচনা করা হত।

ইউরোপীয়রা নিপ্পন শাব্দিক অর্থ সূর্যের উৎপত্তির বিশ্লেষণ করে জাপানকে সূর্যোদয়ের দেশ হিসেবে প্রচার করে।সম্ভবত সবচেয়ে পূর্বের দেশ হিসেবে ইউরোপীয়রা জাপানকে বিবেচনা করায় সূর্যোদয়ের দেশ বলে প্রচার করে ফেলে। এর সেই থেকেই সূর্যোদয়ের দেশ হিসেবে পরিচিত হয়ে আসছে জাপান।তবে এই ধারনাটি বহু সময় ধরে প্রচারিত হলেও আসলে এই ধারনাটা সঠিক নয়।কারন জাপানের অনেক আগে সূর্য উদয়ের প্রথম প্রভাত উপভোগ করে প্রশান্ত ও ভারত মহাসাগরের বুকে থাকা কিছু ছোট ছোট দ্বীপদেশ।

এমন অনেক ছোট ছোট দ্বীপদেশ( যেমন- ফিজি, কুক আইল্যান্ড, টোঙ্গা, সামোয়া, নাওরু,টোকেলাউ,টোভেলু ইত্যাদি) ভারত ও প্রশান্ত মহাসাগরে বুকে রয়েছে যাদের সম্পর্কের ধারনা কিছুকাল আগেও পর্যন্ত ছিল না।

একদল ওলন্দাজ নাবিক  ১৬৪০ খ্রিষ্টাব্দে সর্বপ্রথম অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্রসীমা প্রদক্ষিণ করে।আর  সেই থেকে সবচেয়ে পূর্বের দেশ হিসেবে অস্ট্রেলিয়াকে বিবেচনা করা হত।এরপর ক্যাপ্টেন জেমস কুক  প্রায় ১৩০ বছর পর অর্থাৎ ১৭৭০ খ্রিষ্টাব্দে আবিষ্কার করেন অস্ট্রেলিয়া। অস্ট্রেলিয়া আবিষ্কার হওয়ার পর ধীরে ধীরে আবিষ্কৃত হয়েছিল অনেক ছোট ছোট দ্বীপদেশ।যেসব দ্বীপদেশগুলো সম্পর্কে আমরা বিভিন্ন তথ্য জানতে পারছি। যেমন ভারত মহাসাগরের বুকে অবস্থিত নিউজিল্যান্ডের পিট আইল্যান্ড।এই দ্বীপটি ভারত মহাসাগরের একেবারে পশ্চিম গোলার্ধে এন্টারটিকার কাছাকাছি অবস্থিত হওয়ায় জাপানের চেয়েও চার ঘণ্টা আগে সূর্যোদয় হয়।তবে প্রশান্ত মহাসাগরের  সবচেয়ে পূর্বে অবস্থিত রিপাবলিক অফ কিরিবাতি নামের এই ছোট্ট দ্বীপটি সর্বপ্রথম সূর্য উদয়ের সাক্ষী হয়।

এই জন্য প্রকৃত সূর্যোদয়ের দেশ বলা যেতে পারে প্রশান্ত মহাসাগরের অবস্থিত রিপাবলিক অফ কিরিবাতি এই ছোট্ট দ্বীপটিকে জাপানকে নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.